প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

নিয়মিত রিহ্যাব হোটেলে চলত অসামাজিক কার্যকলাপ

   
প্রকাশিত: ১১:৩৬ পূর্বাহ্ণ, ২ মার্চ ২০২০

দীর্ঘদিন রিহ্যাব আবাসিক হোটেলের মালিক ও ম্যানেজারের যোগসাজসে বিভিন্ন এলাকা থেকে নারী সংগ্রহ করে ওই হোটেলে পতিতাবৃত্তির ব্যবসা চলছিল। রিহ্যাব আবাসিক হোটেল সাতকানিয়া উপজেলার কেরানীহাট এলাকায় অবস্থিত। গতকাল শনিবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে অভিযান চালিয়ে অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকার অভিযোগে হোটেল ম্যানেজারসহ ৩জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন হোটেল ম্যানেজার সাতকানিয়া পৌরসভার ২নম্বর ওয়ার্ড ছগিরা পাড়া এলাকার মো. মফিজুর রহমানের ছেলে সাহাব উদ্দিন(২১), বান্দরবান পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ড মোহাম্মদপুর এলাকার মো. সেকান্দারের ছেলে মো. লিটন(২৪) ও এক নারী।

থানা সূত্রে জানা গেছে, সাতকানিয়া থানার এসআই মশিউর রহমান খান, মাহবুব আলম, মো. জিহাদ আলী ও এএসআই মো. আরিফুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে মাদকবিরোধী নিয়মিত অভিযানে যান। রিহ্যাব হোটেলে অসামাজিক কার্যক্রম চালানোর গোপন সংবাদ পেয়ে ওই হোটেলে অভিযানে যায়। ওই আবাসিক হোটেলের তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম তলা থেকে ম্যানেজারসহ তিনজনকে আটক করা হয়।

এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে রিহ্যাব আবাসিক হোটেলের মালিক উপজেলার ছদাহা ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড ছোট ঢেমশা মেহের আলী মুন্সির বাড়ি এলাকার মৃত ইউনুছের ছেলে আবদুল আজিজ গা ঢাকা দেন। স্বীকারোক্তিতে গ্রেফতারকৃতরা জানায়, দীর্ঘদিন রিহ্যাব আবাসিক হোটেলের মালিক ও ম্যানেজারের যোগসাজশে বিভিন্ন এলাকা থেকে নারী ও খদ্দের সংগ্রহ করে অনৈতিক ব্যবসা চালিয়ে আসছিল।

সাতকানিয়া থানার ওসি মো. সফিউল কবীর বলেন, কেরানীহাট রিহ্যাব আবাসিক হোটেলের মালিক ও ম্যানেজারের যোগসাজশে পুলিশের চোখে ফাঁকি দিয়ে বিভিন্ন এলাকা থেকে পতিতা সংগ্রহ করে হোটেলের ভেতরে পতিতাবৃত্তির অবৈধ ব্যবসা চালিয়ে আসছিল। গ্রেফতারকৃত ও পলাতক মালিকের বিরুদ্ধে মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমন আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এআইআ/এইচি

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: