প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

দিলওয়ার খান

বিশেষ প্রতিনিধি, নেত্রকোনা

নেত্রকোণায় প্রান্তিক ও ক্ষুদ্র চাষীদের বসতবাড়িতে পুষ্টিসমৃদ্ধ সবজি চাষের উদ্যোগ

   
প্রকাশিত: ৩:৪৬ অপরাহ্ণ, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০

কোভিড-১৯ মহামারিজনিত কারণে সম্ভাব্য খাদ্য সংকট মোকাবিলায় প্রতি ইঞ্চি জমির সর্বোত্তম ব্যবহার বিষয়ে সরকারি নির্দেশনার সাথে সামঞ্জস্য রেখে কৃষি মন্ত্রণালয় সারা দেশে ৬ লাখ ৫০ হাজার বাড়ির উঠনে সবজি চাষ করার পরিকল্পনা করেছে।

মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে নেত্রকোনার প্রতিটি উপজেলায় শুরু হয়েছে এই আধুনিক কালিকাপুর মডেলের সবজি চাষ।

নেত্রকোনা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, জেলার ১০টি উপজেলায় ২২৪০জন প্রান্তিক ও ক্ষুদ্র চাষীদের মাঝে পাঁচটি বেড পর্যায়ে ১০টি জাতের উন্নত জাতের সবজির বীজ, সার এবং রক্ষণাবেক্ষণ এর জন্য ১০০০ টাকা করে কৃষি প্রণোদনার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে তারা।

এই কার্যক্রমে নেত্রকোনা সদরের ৫১২ জন পূর্বধলায় ৩৫২ জন, দুর্গাপুর ১১২জন, মোহনগঞ্জ ১১২ জন বারহাট্টায় ১৬০ জন, কেন্দুয়ায় ৩২০ জন, আটপাড়ায় ১৯২ জন, মদনে ১৯২ জন খালিয়াজুরীতে ৯৬ জন চাষী নির্বাচন করে তাদের এই সুবিধা দোয়া হয়।

এতে করে সবজি উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৫৫০০ কেজি এবং পরবর্তীতে জেলার ১০টি উপজেলায় আরো ২০০০ জন প্রান্তিক ক্ষুদ্র চাষীদের এ সুবিধার আওতায় আনার পরিকল্পনা ব্যক্ত করেছেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর নেত্রকোনা উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মোঃ হাবিবুর রহমান।

তিনি বলেন, এই প্রকল্পের মাধ্যমে আমাদের নেত্রকোনা জেলার ৪২৪০টি পরিবার সবজি ও পুষ্টির চাহিদা পূরণ করবে পাশাপাশি সবজি বাজারে বিক্রি করেও আর্থিক দিক থেকে লাভবান হবে এবং জেলার সর্বস্তরের জনসাধারণের পুষ্টির চাহিদা পূরণ হবে।

এই প্রকল্পটির কেন গ্রহণ করা হয়েছে জানতে চাইলে উক্ত কৃষি কর্মকর্তা বলেন, চাহিদা ও লোকসংখ্যা অনুযায়ী ও ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় কালিকাপুর মডেলের মাধ্যমে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক চাষীদের পুষ্টির চাহিদা জন্য এ প্রকল্প চালু করা হয়েছে। তিনি আরও জানান ২০২০ সালে এই মডেলটি নেত্রকোনায় চালু হয়েছে।

আদর্শ সামাজিক প্রগতি সংস্থার নির্বাহী পরিচালক কৃষিবিদ মুস্তাসিম বিল্লাহ বলেন, কৃষিভিত্তিক নেত্রকোনায় এ প্রকল্পটি চালু থাকলে আমাদের পুরনো ঐতিহ্য ফিরে আসবে এবং স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের মাধ্যমে পরিচর্যা ও রক্ষণাবেক্ষণের জন্য সহযোগিতা নিলে এই প্রক্রিয়াটি দ্রুত সফলতার মুখ দেখবে।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: