প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / বিস্তারিত

নয় সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রে বেকার ৪ কোটি

   
প্রকাশিত: ৯:০৭ পূর্বাহ্ণ, ২৩ মে ২০২০

মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রকোপে চলমান লকডাউন শিথিল হতে থাকলেও বেকারত্ব কমার কোনো লক্ষণ নেই যুক্তরাষ্ট্রে। গত এক সপ্তাহে আরও ২৪ লাখ মানুষের বেকার ভাতার ফাইল জমা পড়েছে বলে দেশটির শ্রম বিভাগের তথ্যে জানানো হয়েছে। নতুন বেকারদের নিয়ে চলমান করোনাভাইরাস সংকটে যুক্তরাষ্ট্রে ৯ সপ্তাহে মোট বেকারের সংখ্যা ৪০ লাখ ছুঁই ছুঁই করছে বলে শ্রম বিভাগের তথ্য তুলে ধরে জানিয়েছে দ্য গার্ডিয়ান। গত শতকের ৩০ এর দশকে ‘মহামন্দার’ পর এমন বেকারত্ব কখনো দেখেনি দেশটি। যুক্তরাষ্ট্রের অর্থমন্ত্রী স্টিভেন মুচিন বলেছেন, চলমান অচলাবস্থার কারণে বেকারত্বের উল্লম্ফন চলতেই থাকবে। লকডাউন দীর্ঘস্থায়ী হলে দেশের অর্থনীতি স্থায়ীভাবে ভেঙে যেতে পারে বলেও সতর্কতা উচ্চারণ করেছেন তিনি।

প্রতি সপ্তাহে বেকারত্বের যে হার উঠে আসছে তা প্রকৃত চিত্র নয় বলে ধারণা করা হচ্ছে। কেননা যারা বেকার হচ্ছেন তারা তাৎক্ষণিক ভাতা বা অন্যান্য সুবিধাদি পাওয়ার জন্য আবেদন করতে পারেন না।কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রে বর্তমানে বেকারত্বের হার ১৪.৭ শতাংশ, যা ‘মহামন্দার’ পর সর্বোচ্চ। অর্থনীতিবিদদের পূর্বাভাস, আসছে মাসগুলোতে বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর দেশটিতে বেকারত্বের সংখ্যা ছড়াতে পারে ২০ শতাংশ।

কেএ/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: