প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / বিস্তারিত

পণের জন্য মা-মেয়েকে খুন, পানির ট্যাঙ্কে মিলল লাশ!

১২ জুন ২০১৯, ৯:১২:৫৭

ছবি: ইন্টারনেট

প্রায়ইশ পণের টাকা দাবি করে বসত স্বামী। কিন্তু সেই দাবি করা পণের টাকার অংকটা বরাবরের ন্যয় এবার একটু বেশি ছিল। তবে সেই টাকা দিতে পারবেনা বলেই বাড়ির বউ এবং ছোট শিশু কে খুন করে ট্যাঙ্কে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠে। উদ্ধার করা হয় মা-মেয়ের দেহ। ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানের বিকানেরে । পানির ট্যাঙ্ক থেকে উদ্ধার করা হয় ২৭ বছরের এক মহিলা ও তার দু’বছরের কন্যা সন্তানের মৃতদেহ।

শনিবার (৮ জুন) তাদের দেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। উদ্ধার হওয়া ওই মহিলার নাম প্রেরণা স্বামী। প্রেরণার বাবার অভিযোগ, পণের দাবিতেই তার মেয়েকে মেরেছে শ্বশুরবাড়ির লোকজন।

এই ঘটনার পর প্রেরণার স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন প্রেরণার বাবা মোহনলাল।

তিনি বলেন, পণের জন্য তার মেয়ের উপর প্রায়শই অত্যাচার চালাত তার শ্বশুডরবাড়ির লোকজন।

এদিকে বিকানেরের সিটি সার্কেল অফিসার সুভাষ শর্মা বলেন, ‘মেয়েটির বাবার দাবি পণের জন্যই খুন হতে হয়েছে তার মেয়েকে। এফআইআর দায়ের হয়েছে। আমরা বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করছি।’

তিনি আরও বলেন, রবিবার সকালে খবর পেয়ে জলের ট্যাঙ্ক থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করি। মা ও মেয়ের দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পোস্টমর্টেম রিপোর্টের জন্য পুলিশ অপেক্ষা করছে বলে জানিয়েছেন অফিসার।

বিডি২৪লাইভ/এসএএস

এসএ/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: