প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

পহেলা অক্টোবর থেকে ঝুলন্ত তারের জঞ্জাল সরবে উত্তর সিটিতে

   
প্রকাশিত: ১২:০৫ অপরাহ্ণ, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

পুরো রাজধানীজুড়ে তারের জঞ্জাল। অলিতে গলিতে বিদ্যুতের খুঁটিতে তার আর তার। ডিশ ক্যাবল লাইন, ইন্টারনেট লাইন, টেলিফোনের লাইনসহ যত্রতত্র ক্যাবল টানানোর ফলে তারের জঞ্জালে নষ্ট হচ্ছে শহরের সৌন্দর্য। এ অবস্থায় ঝুলন্ত তার অপসারণের মাধ্যমে শহরের সৌন্দর্য ফেরাতে কঠোর হচ্ছে ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন। এদিকে পহেলা অক্টোবর থেকে ঝুলন্ত তার অপসারণ শুরু করবে ঢাকার উত্তর সিটি কর্পোরেশন।

মেয়র আতিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, নির্দিষ্ট সড়কভিত্তিক বিকল্প ব্যবস্থা চালু করে তবেই সরানো হবে তারের জঞ্জাল। উত্তর সিটিতে ক্যাবল সংযোগ নিরবচ্ছিন্ন রাখার নানা উদ্যোগ থাকলেও দক্ষিণ সিটিতে তা অনুপস্থিত। সমন্বিত ব্যবস্থার অভাবে তার অপসারণে গ্রাহক ভোগান্তি হচ্ছে বলে অভিযোগ সেবাদাতা সংগঠনগুলোর। ঝুলন্ত তারের জঞ্জালমুক্ত হবে রাজধানী। দক্ষিণ সিটিতে আগে থেকেই ক্যাবল অপসারণ চললেও উত্তর সিটিতে শুরু হবে অক্টোবর থেকে। তাই রাজধানীর উত্তরায় নিজেরাই উদ্যোগী হয়ে বৈদ্যুতিক খুঁটি থেকে অপ্রয়োজনীয় তার সরাচ্ছেন সেবাদাতারা।

উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘সংযোগের বিকল্প ব্যবস্থা করেই প্রধান সড়ক থেকে তারের জঞ্জাল সরাবেন তিনি। চলছে মাটির নিচ দিয়ে ক্যাবল নেয়ার পাইলট প্রকল্পও।’

তিনি বলেন, ‘সিটি কর্পোরেশন থেকে এখনও কোন অভিযান পরিচালনা হচ্ছে না। আমরা এক তারিখ থেকে এ অভিযান শুরু করবো।আমরা পাকিস্থান অ্যাাম্বাসির সামনে থেকে শুরু করে শুটিং ক্লাব পর্যন্ত রোডটা সবার আগে ক্যাবল মুক্ত করতে চাচ্ছি।’

উত্তর সিটির মতো দক্ষিণ সিটিতে ক্যাবল ব্যবস্থাপনায় সমন্বিত উদ্যোগের অভাব দেখছে- আইএসপিএবি। আইএসপিএবি সভাপতি আমিনুল হাকিম বলেন, ‘পাকিস্তান অ্যাম্বাসি থেকে শুটিং কমপ্লেয পর্যন্ত যে ক্যাবলটা কাটা হচ্ছে এতে কেউই ইন্টারনেট বিচ্ছিন্ন হবে না। এটার কারণ হচ্ছে তারা সমন্বয় করে কাজ করছে। দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ক্যাবল কাটবেন উনি কালকে কোথায় কাটবেন আজকে কোথায় কাটবেন কিছুই জানি না।’

দক্ষিণ সিটির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মুনিরুজ্জামান বলেন, ‘তারের জঞ্জাল সরাতে অভিযান চলমান থাকবে।’ তিনি বলেন, ‘এটা দীর্ঘদিনের একটা সমস্যা, তাই সমাধানেও কিছুটা সময় লাগবে। আমাদের নিয়মিত অভিযান চলছে।’ তার অপসারণ শুরু হলে নিরবচ্ছিন্ন সেবায় কিছু ভোগান্তি হতে পারে স্বীকার করলেন উত্তরের মেয়র।

আরএএস/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: