প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

পাটুরিয়া ঘাটে বাড়ছে ঘরমুখী মানুষ চাপ

   
প্রকাশিত: ১০:২২ অপরাহ্ণ, ২২ মে ২০২০

সাহিদুজ্জামান সাহিদ, মানিকগঞ্জ থেকে: রাজধানীবাসী স্বজনের সঙ্গে ঈদ করতে ঘরে ফিরতে শুরু করেছে। শুক্রবার (২২ মে) বেলা বাড়ার সাথে সাথেই ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক ও পাটুরিয়া ঘাটে ছিল ঘরমুখী মানুষের ভিড়। গণপরিবহন বন্ধ থাকলেও অনেকে যানবাহন বদলে বদলেই ফিরছেন স্বজনের টানে। কাজের ক্ষেত্র সংকীর্ণ হওয়ায় আয়ের সাথে ব্যায় মেলাতে না পেড়ে রাজধানী ছেড়ে বাড়ীতে ফিরছেন কেউ কেউ। ঢাকায় একটি বিপণি বিতানে কাজ করেন জামাল উদ্দিন। তিনি ফিরছেন রাজবাড়ীতে।

আক্কাস আলী বলেন, পরিবারের সঙ্গে ঈদের একটা বিষয় থাকে। রিকশা, পিকআপ ভ্যান- এভাবে যানবাহন বদলে মানিকগঞ্জ এসেছি। বাকি পথও এভাবে চলে যাব। ফরিদপুর যাবেন বলে পরিবার নিয়ে বের হয়েছেন আবুল কাশেম। ঢাকায় তিনি একটি বেসরকারি চাকরি করেন। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ঢাকায় থাকার অবস্থা নেই। বেতন বন্ধ, বোনাস হয়নি। ঢাকায় অনেক খরচ। গ্রামে গেলে অন্তত খেয়ে-পরে বাঁচতে পারবো।

মানিকগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (শিবালয় সার্কেল) তানিয়া সুলতানা বলেন, গত দুদিন ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় পাটুরিয়া ঘাট এলাকায় ছয় কিলোমিটার দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। পচনশীল ও জরুরি পণ্যবাহী গাড়ি আটকা পড়েছে। যে কারণে ওই গাড়িগুলো পার করা হচ্ছে। ব্যক্তিগত যানবাহন চলাচলে শিথিলতা আসায় যাত্রীদেরও যেতে দেওয়া হচ্ছে। ঢাকা-আরিচা মহাড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে পুলিশের চেকপোস্ট আছে, বাস চলতে দেওয়া হচ্ছে না।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন সংস্থা (বিআইডব্লিউটিসি) আরিচা আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপমহাব্যবস্থাপক জিল্লুর রহমান বলেন, ঘূর্ণিঝড় আম্পানের কারণে দুদিন বন্ধ থাকলেও গতকাল রাত ১১টা থেকে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথে ফেরি চলাচল শুরু হয়েছে। মোট ১৬টি ফেরি প্রস্তুত আছে। বর্তমানে আটটি চালু রাখা হয়েছে। প্রয়োজনে বাকি ফেরিগুলো যুক্ত করা হবে।

কেএ/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: