প্রচ্ছদ / ক্যাম্পাস / বিস্তারিত

পাল্টে যাচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার নিয়ম

     
প্রকাশিত: ১২:১৭ অপরাহ্ণ, ১১ জুলাই ২০১৯

ছবি: ইন্টারনেট

প্রাচ্যের অক্সফোর্ড নামে খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আসন্ন শিক্ষাবর্ষ (২০১৯-২০) স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষে ভর্তি পরীক্ষা নিয়ম পাল্টে যাচ্ছে। এবারের ভর্তি পরীক্ষায় বহু নির্বাচনী প্রশ্নের (এমসিকিউ) পাশাপাশি থাকবে লিখিত পরীক্ষা। বিগত পরীক্ষাগুলোতে শুধু মাত্র এমসিকিউয়ের মাধ্যমে পরীক্ষা নেওয়া হতো।

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি), ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ একাধিক বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। ১৭ জুলাই উচ্চমাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে। তার আগেই ভর্তির প্রস্তুতি শুরু হয়েছে।

পাশাপাশি কেবল কৃষি ও কৃষির প্রাধান্য থাকা আট সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় একসঙ্গে ভর্তি পরীক্ষা নেবে। সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত বাকি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আগের মতোই আলাদাভাবে ভর্তি পরীক্ষা হবে।

আসন্ন শিক্ষাবর্ষ (২০১৯-২০) থেকে ৬০ নম্বরের এমসিকিউ ও ৪০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষার মাধ্যমে ভর্তির সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এমসিকিউ ৪০ মিনিট এবং লিখিত পরীক্ষার জন্য ৫০ মিনিট সময় থাকবে। সংক্ষিপ্ত আকারের লিখিত প্রশ্ন উত্তরপত্রের মধ্যেই থাকবে এবং সেখানেই উত্তর দিতে হবে। দুই অংশ মিলিয়ে ১০০ নম্বরের ভর্তি পরীক্ষার ফল এবং এসএসসি ও এইচএসসি বা সমমানের ফলকে ১০০ নম্বর হিসাব করে মোট ২০০ নম্বরের ভিত্তিতে ভর্তির জন্য শিক্ষার্থী নির্বাচন করা হবে।

এদিকে গণমাধ্যম সুত্র থেকে জানা যায় ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির ক্ষেত্রে শুধু এমসিকিউ দিয়ে একজন শিক্ষার্থীর প্রকৃত জ্ঞান ভালোভাবে বোঝা যায় না। লিখিত পরীক্ষা হলে সামগ্রিকভাবে শিক্ষার্থীর জ্ঞান জানা যাবে। এ জন্যই এমসিকিউয়ের পাশাপাশি লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হবে।

পরীক্ষা পদ্ধতি: বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ৮৪টি বিভাগ রয়েছে। এগুলোতে প্রথম বর্ষে মোট আসন ৭ হাজার ৬৩০ টি। পাঁচটি ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষা হয়। ৫ আগস্ট থেকে ২৭ আগস্ট পর্যন্ত অনলাইনে ভর্তি পরীক্ষার আবেদনপত্র গ্রহণ করা হবে। তবে টাকা জমা দেওয়ার শেষ সময় ২৮ আগস্ট। এবার মোট আবেদন ফি ১০০ টাকা বাড়িয়ে ৪৫০ টাকা করা হয়েছে।

নম্বর: ৬০ নম্বরের এমসিকিউ, ৪০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা। তবে সময়: এমসিকিউ ৪০ মিনিট, লিখিত পরীক্ষা ৫০ মিনিট এর সঙ্গে সংক্ষিপ্ত লিখিত প্রশ্ন উত্তরপত্রের মধ্যেই থাকবে উত্তরপত্রের মধ্যেই লিখিত প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদভুক্ত ‘গ’ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা হবে ১৩ সেপ্টেম্বর।

বিজ্ঞান অনুষদের ক্ষেত্রে অনুষদভুক্ত ‘ক’ ইউনিটের পরীক্ষা ২০ সেপ্টেম্বর। কলা অনুষদভুক্ত ‘খ’ইউনিটের পরীক্ষা ২১ সেপ্টেম্বর। সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ঘ’ ইউনিটের পরীক্ষা হবে ২৭ সেপ্টেম্বর।

চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিটের সাধারণ জ্ঞান অংশের পরীক্ষা ১৪ সেপ্টেম্বর। অঙ্কন অংশের পরীক্ষা হবে ২৮ সেপ্টেম্বর।

অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা: দেশে ৪৯টি স্বায়ত্তশাসিত ও সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৪ টিতে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। এর মধ্যে কেবল বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় এবং সমধারার পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ও হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় গুচ্ছ ভিত্তিতে পরীক্ষা নেবে।

এসএ/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: