প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

খায়রুল আলম রফিক

বিশেষ প্রতিনিধি

পুনাকের সভানেত্রীর উদ্যোগে বন্যার্তদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ

   
প্রকাশিত: ৬:৫৯ অপরাহ্ণ, ৩০ জুলাই ২০২০

পুলিশ নারী কল্যাণের (পুনাক) ময়মনসিংহের উদ্যোগে অতি বৃষ্টি ও পাহাড়ী ঢলে সৃষ্ট বন্যায় তিগ্রস্থ ৫ শতাধিক পরিবারের মাঝে ত্রাণ সহায়তা ও ঈদ উপহার বিতরণ করা হয়েছে। আজ বুধবার দুপুরে পুনাকের সভানেত্রী ও ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার পত্নী কানিজ আহমার এই উপহার সামগ্রী বিতরণ করেন। জেলার সীমান্ত হালুয়াঘাট ও ধোবাউড়ার বিভিন্ন অঞ্চলে অতি বৃষ্টি ও পাহাড়ী ঢলে সৃষ্ট বন্যায় তিগ্রস্তদের মাঝে এই উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

করোনার মহামারি সাথে সাথেই লাগাতর অতি বৃষ্টি ও কয়েকদফা বন্যায় দেশের মানুষ বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। ময়মনসিংহও এই মহামারি থেকে বাদ যায়নি। এই মহামারির মধ্যে কয়েকদফা বন্যায় ময়মনসিংহের সীমান্তবর্তী ধোবাউড়া ও হালুয়াঘাট উপজেলায় হাজার হাজার মানুষ চরম তিগ্রস্ততার মধ্যে পড়েছে। এই অবস্থায় পুলিশ নারী কল্যাণ (পুনাক) ময়মনসিংহ ত্রাণ সহায়তা ও ঈদ উপহার নিয়ে হাজির হয়ে আবারো প্রমান করলো পুলিশ মানবিক। বুধবার পুনাক সভানেত্রী কানিজ আহমার ধোবাউড়ার বাঘবেড়, পোড়াকান্দুলিয়া, গামারিতলা, ধোবাউড়া সদর, ঘোষগাও ও গোয়াতলাসহ ৭টি ইউনিয়নে দুই শতাধিক তিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণ ও ঈদ সামগ্রী বিতরণ করেন। এদিকে বুধবার সকাল ভোর রাত থেকে টানা বৃষ্টি চলতে থাকায় ত্রাণ সহায়তা নিতে আসা লোকজনকে হালুয়াঘাট থানায় সমাবেত করা হয়। পরে থানা কম্পাইন্ডে তিন শতাধিক অসহায়ের মাঝে এই উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

এ সময় হালুয়াঘাট থানার ওসি মাহমুদুল হাসান, ধোবাউড়া থানার ওসি আলী আহাম্মদ, ডিবি পুলিশের সেকেন্ড অফিসার আনোয়ার হোসেন, এসআই কামরুল হাসান, কন্সটেবল বাবুল, ফয়সাল ও এমদাদুল সাথে ছিলেন।

উপহার সামগীর মাঝে ছিল, আতব চাল, তেল, সেমাই, চিনি ও দুধ। এর আগে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের তত্বাবধানে হালুয়াঘাট ও ধোবাউড়া থানা পুলিশের সহায়তায় বন্যায় তিগ্রস্তদের মধ্য থেকে ৫ শতাধিক অসহায়দের তালিকা করা হয়।

এর আগেও পুনাক ময়মনসিংহ করোনায় নতুন করে বেকার হয়ে পড়া ও ছিন্নমূল অসহায় মানুষের মাঝে বিভাগীয় নগরীসহ জেলার বিভিন্ন থানা এলাকায় ত্রাণ সহায়তা চাল, ডাল, আলু, তেল, চিনি, চা, দুধ বিতরণ করেন। করোনা সংক্রমণরোধে সরকারি ছুটিকালীন সময়ে পুনাক সভানেত্রী কানিজ আহমার নগরীর বিভিন্ন স্থানে রান্না করা খাবার, রমজানের ঈদের আগে অসহায় ছিন্নমূল, বস্তিবাসি ও এতিমদের মাঝে ঈদে নতুন জামা উপহার দেন। এর আগে ময়মনসিংহ রেলওয়ে স্টেশনসহ বিভিন্ন এলাকায় শীতবস্ত্র বিতরণ করে ব্যাপক আলোচনায় আসেন।

এর আগে করোনার দুর্যোগে ময়মনসিংহে বস্তিবাসী, অসহায়, অস্বচ্ছল, দিন এনে দিন খাওয়া, কর্মহীন, শ্রমিক, বেদে পরিবার, সেলুনকর্মী, কুলি শ্রমিক, এতিমখানাসহ মধ্যবিত্ত অসহায়দের খুঁজে খুঁজে তালিকা করে পুলিশ সুপার নিজস্ব অর্থায়নে প্রায় আট হাজার অসহায়দের পর্যাক্রমে খাদ্য সহায়তা বিতরণ করে ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আহমার উজ্জামান তার মানিবকতার বহিপ্রকাশ ঘটিয়েছেন। শুধু পুলিশ সুপার নিজেই নন তার পত্নী কানিজ আহমার আরো অধিক মানবিক একজন মানুষ বলেও পুলিশের বিভিন্নস্তরে প্রমাণ মিলেছে বলে পুলিশ দাবি করেছে।

এআইআ/এইচি

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: