প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

কামরুজ্জামান

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি

পুলিশি বাধায় চুয়াডাঙ্গায় ছাত্রদলের ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন

   
প্রকাশিত: ২:১৬ অপরাহ্ণ, ১ জানুয়ারি ২০২০

কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা ও পুলিশী বেস্টনির মধ্য দিয়ে চুয়াডাঙ্গায় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করা হয়েছে। এ সময় বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মিদের সাথে পুলিশের কয়েক দফা ধস্তাধস্তির ঘটনাও ঘটে। তবে, শেষমেষ বাঁধার কারণে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শোভাযাত্রা বের করতে পারেনি ছাত্রদলের নেতাকর্মিরা।

জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বুধবার (১ জানুয়ারি) সকাল থেকেই জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে শহরের শিল্পকলা একাডেমি চত্বরে জড়ো হতে থাকে ছাত্রদলের নেতাকর্মিরা। সেখানে বিপুল সংখ্যক পুলিশ দিয়ে নেতাকর্মিদের অবরুদ্ধ করে রাখা হয়। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিএনপির সিনিয়র নেতৃবৃন্দদের নিয়ে ছাত্রদল প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শোভাযাত্রা বের করতে গেলে পুলিশ বাঁধা দেয়। এ সময় বিএনপির নেতাকর্মিদের সাথে পুলিশের কয়েক দফা ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে।

পুলিশি বাধার কারণে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শোভাযাত্রা বের করতে না পেরে শিল্পকলা চত্বরেই জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন ছাত্রদলের নেতাকর্মিরা। পরে সেখানেই প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রদলের সভাপতি শাহাজান খাঁনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক এ্যাড. ওয়াহেদুজ্জামান বুলা, মজিবুল হক মালিক মজু, জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সাইফুর রশিদ ঝন্টু, জেলা বিএনপির অন্যতম নেতা শরীফুজ্জামান শরীফ, ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মোমিনুর রহমানসহ বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মিরা।

বক্তারা বলেন, বাংলাদেশ আজ কঠিন সংকটে। দেশে গণতন্ত্র নাই, মানুষের কথা বলার অধিকার নেই। গণতন্ত্রের আপোষহীন নেত্রী আজ কারারুদ্ধ। বাকশালী এ সরকার দেশে আওয়ামী একদলীয় শাসন ব্যবস্থা চালু করেছে। এর থেকে উত্তরণ পেতে ছাত্রদলের নেতাকর্মিদেরকেই অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে। কারণ বাংলাদেশের আন্দোলন সংগ্রামে ছাত্রদলের ইতিহাস গৌরবমাখা। আলোচনা সভায় ছাত্রদল প্রতিষ্ঠার ইতিহাস ও আগামীতে আন্দোলন সংগ্রাম নিয়ে আলোচনা করা হয়। গোটা অনুষ্ঠানটি সম্পন্ন হয় পুলিশী বেস্টনির মধ্যে।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: