এসডিএন প্রযুক্তি সম্প্রসারণে চুক্তিবদ্ধ হল এইচজিসি ও আমরা

   
প্রকাশিত: ১:৪৩ অপরাহ্ণ, ২৫ জুন ২০২০

পরিপূর্ণ ফিক্সড-লাইন অপারেটর এবং স্থানীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে বিস্তৃত নেটওয়ার্ক, অবকাঠামোসহ আইসিটি পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থা এইচজিসি গ্লোবাল কমিউনিকেশন্স লিমিটেড (এইচজিসি) ঘোষণা করছে, প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় ইন্টারনেট ও অবকাঠামো পরিষেবা প্রদানকারী কোম্পানি আমরা নেটওয়ার্কস লিমিটেডের(আমরা) সঙ্গে একটি সমঝোতা স্মারক সম্পাদন করেছে। যার মাধ্যমে এসডিএন প্রযুক্তি ব্যবহার করে নেটওয়ার্ক সুসংহত ও সম্প্রসারণ করা হবে। মঙ্গলবার (২৩ জুন) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞিপ্তিতে আরও জানানো হয়, ক্লাউড ব্যবসায় এশিয়া একটি নতুন বৃহৎ বাজার হওয়ার সক্ষমতা অর্জন করছে। ক্লাউড প্রযুক্তি এই অঞ্চলের কর্পোরেট/ওটিটি (ওভার-দি-টপ) গ্রাহকদের উচ্চমানের সংযোগ ও কম্পিউটার সাক্ষরতায় সহায়তা করে আসছে। সফ্টঅয়্যার-ডিফাইন্ড নেটওয়ার্ক (এসডিএন) ক্লাউডভিত্তিক তথ্যপ্রযুক্তি অবকাঠামোর একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ, এইচজিসি ও আমরা সহযোগী হওয়ায় তাঁদের গ্রাহকেরা বিশ^মানের নেটওয়ার্ক-সুবিধা ও তা সম্প্রসারণের সক্ষমতা দেখিয়ে নেটওয়ার্ক-পরিধি বাড়াতে পারবে, একইসঙ্গে ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহার করে গ্রাহক, যেমন- বহুজাতিক কোম্পানিকে চাহিদা অনুযায়ী ও শূন্যস্পর্শে, সেই সঙ্গে নিশ্ছদ্র, দ্রুত, টেকসই ও সহজ-নমনীয় ক্লাউড সংযোগ প্রদানের মাধ্যমে আঞ্চলিক ব্যবসার প্রসার ঘটাতে পারবে।

এইচজিসি ও আমরা সহযোগী হয়ে এসডিএন-এর মাধ্যমে এইচজিসি’র আন্তর্জাতিক বাজারে আজিয়ান (ASEAN) ও বৈশ্বিক সম্প্রদায়ের মধ্যে আন্তঃবাহক নেটওয়ার্ক সুসমন্বয়সাধন করে গ্রাহকদের ডিজিটালাইজেশনের উপর জোর দেবে। যা এমইএফ মান অনুসরণ করে। গ্রাহকেরা এডাব্লিউএস, আলিবাবা ক্লাউড, মাইক্রোসফ্ট আজুর ও গুগল ক্লাউডে কেন্দ্রীয়ভাবে সরাসরি নিরাপদ সংযোগ স্থাপন করতে পারবেন এবং প্রোগ্রামেটিক্যালি দক্ষ নেটওয়ার্ক রূপরেখা, নেটওয়ার্ক উন্নতকরণ ও পর্যবেক্ষণ, সেই সঙ্গে তাঁদের ব্যবসা পরিচালনা ও প্রকল্প ব্যবস্থাপনা এবং লেভারেজ ক্লাউড পরিষেবা দিয়ে সংস্থাপন দৃঢ় করতে পারবেন এবং সর্বোচ্চ সুবিধা নিশ্চিত করতে পারবেন। এটি বিশেষ করে ব্যাংকিং ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। যেখানে তথ্যপ্রবাহ নিয়ন্ত্রকনীতি অনুসারে উন্মুক্ত নেটওয়ার্কে পরিচালনা করা যায় না।

বাংলাদেশ বিশ্বের দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতির অন্যতম এবং বিশ্বের শীর্ষ ১০ দেশের একটি। যেখানে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক মোবাইল ফোন ব্যবহৃত হয়। বৈশ্বিক নেটওয়ার্ক-অবকাঠামো ডিজিটাল অর্থনীতির ভিত্তি, যেখানে নেটওয়ার্কের সফ্টঅয়্যারাইজেশন ও ভার্চুয়ালাইজেশন আগামী প্রজন্মের প্রযুক্তি, যেমন- ফাইভ জি ও আইওটি’র মূল চালিকাশক্তি। এই সহযোগিতা-চুক্তি স্থানীয় কর্পোরেট বাজার ও অর্থনীতির প্রধান স্তম্ভসমূহ যেমন- সরকারি ও বেসরকারি সংস্থা, আরএমজি (তৈরী পোশাক), ব্যাংকিং ও সরকার এবং দ্রুত বর্ধনশীল বাজারে ডিজিটাল নেটওয়ার্কের প্রবেশ ত্বরান্বিত করবে।

বিশ্বব্যাপী পিওপি (পপ)-এর মাধ্যমে একটি এসডিএন প্লাটফর্ম দিয়ে বৈশ্বিক নেটওয়ার্কের রূপান্তর উভয় কোম্পানির ক্রমাগত মূল লক্ষ্য ও কৌশল। এই জোট বাংলাদেশ ও আজিয়ানভিত্তিক স্থানীয় ও বহুজাতিক গ্রাহকবৃন্দকে এইচজিসি’র ৩০টি পপ। যা হংকং, মায়ানমার, সিঙ্গাপুর, লন্ডন, লস এঞ্জেল্স-এ রয়েছে, সেগুলোতে এবং সর্বোপরি দেশজুড়ে আমরা’র ডেটা সেন্টার ও পপসমূহে অভিগমনের সুযোগ দেবে। এটি ল্যাটেন্সির নিম্নমুখিতা নিশ্চিত করবে এবং এইচজিসি’র বৈশি^ক নেটওয়ার্ক অবকাঠামোতে সরাসরি সংযুক্ত থাকার কারণে বিভিন্ন শিল্পের বহুজাতিক সংস্থা, যেমন- উৎপাদন ও ব্যাংকিং খাতের সর্বশেষ ব্যবহারকারীদের সংযোগ-মান বাড়াবে।

আমরা’র চেয়ারম্যান সৈয়দ ফারুক আহমেদ বলেন, এইচজিসি’র সঙ্গে এসডিএন-সেবা প্রদানে আমাদের জোটবদ্ধ হওয়ার বিষয়টি ঘোষণা করতে পেরে আমি আনন্দিত। এটি বাংলাদেশের আইটি ও আইসিটি খাতে বিপ্লব বয়ে আনবে। এসডিএন-প্রযুক্তির আবির্ভাবে বাংলাদেশের আইটিতে বড় ধরণের পরিবর্তন হবে; বৈশ্বিক ইন্টারনেট এক্সচেঞ্জসমূহে ও সারাবিশ্বের ডেটা সেন্টারে নিখুঁত সংযোগ নিশ্চিত করার মাধ্যমে হার্ডঅয়্যার থেকে শুরু করে সফ্টঅয়্যারভিত্তিক অটোমেশন ও নেটওয়ার্ক ব্যবস্থাপনায় সেটি হবে। ‘আমরা’ এই উদ্যোগের অংশীদার হতে পেরে গর্বিত।

এইচজিসি’র আন্তর্জাতিক ব্যবসার এসভিপি রবীন্দ্রন মাহালিংগাম বলেন, এইচজিসি বাংলাদেশের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি কোম্পানি আমরা’র সঙ্গে সহযোগিতা-চুক্তি করতে পেরে খুশি। আন্তঃবাহক এসডিএন-পরিবাহিতার মাধ্যমে আমাদের ডিজিটাল রূপান্তরের উদ্যোগ গতিশীলতা নিয়ে প্রসারের সঙ্গে সঙ্গে এইচজিসি নমনীয় নেটওয়ার্ক অবকাঠামো, সেই সঙ্গে মানের ক্ষেত্রে বৈশ্বিক চাহিদা, মান ও নির্ভরশীলতার আকাক্সক্ষাপূরণপূর্বক বহুমুখি আইসিটি সলিউশন প্রদান করে বাজারে নেতৃত্ব দিতে এবং মহাদেশজুড়ে পরিষেবা সম্প্রসারণে বদ্ধপরিকর। আমরা আজিয়ান ও দক্ষিণ এশিয়ার ওটিটি অপারেটর ও কর্পোরেট গ্রাহকদের ক্রমবর্ধমান মাল্টিমিডিয়া ব্যবহারের চাহিদা পূরণ করতে গ্রাহককেন্দ্রীক সেবা প্রদানের জন্য আমাদের জোটকে প্রসারিত করবো।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: