প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

ফেসবুকে প্রেম করে কিশোরীকে ধর্ষণ!

   
প্রকাশিত: ১০:১৭ অপরাহ্ণ, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জে এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে সুজন আহমেদকে (২১) আটক করে পুলিশে দিয়েছেন স্থানীয় জনতা। আটককৃত সুজন আহমেদ আজমিরীগঞ্জ সদর ইউনিয়নের বিরাট উজানপাড়ার (আসাম পাড়ার) গ্রামের আবু বক্কর মিয়ার ছেলে। তিনি বিবাহিত এবং তার স্ত্রী আট মাসের অন্তঃসত্বা বলে জানা গেছে। বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) রাতে ধর্ষণের শিকার কিশোরী বাদী হয়ে সুজন আহমেদ ও তার বন্ধু মুসলিম মিয়ার নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরো কয়েক জনের বিরুদ্ধে আজমিরীগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কয়েক মাস আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আজমিরীগঞ্জ উপজেলার শিবপাশা ইউনিয়নের সিকন্দরপুর গ্রামের ওই কিশোরীর সঙ্গে পরিচয় হয় সুজনের। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বৃহস্পতিবার বিকেলে সুজন তার বন্ধু মুসলিম মিয়াকে সঙ্গে নিয়ে ওই কিশোরীর বাড়িতে যান। এ সময় বাড়িতে কেউ না থাকার সুবাদে ‘বিয়ের প্রলোভন’ দেখিয়ে তাকে ধর্ষণ করে সুজন। এ সময় স্থানীয়রা হাতে নাতে সুজন আহমেদকে আটক করে পুলিশে খবর দেন।

খবর পেয়ে শিবপাশা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আশরাফ আলী ঘটনাস্থলে পৌঁছে সুজনকে আটক করে আজমিরীগঞ্জ থানায় নিয়ে আসেন। পরে ওই কিশোরী বাদী হয়ে সুজন আহমেদ ও তার বন্ধু মুসলিম মিয়ার নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করে।

আজমিরীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোশারফ হোসেন তরফদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ধর্ষণের অভিযোগ এনে কিশোরী বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার রাতে মামলা দায়ের করেছে। শুক্রবার দুপুরে আটককৃত যুবককে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। পাশাপাশি ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য কিশেরীকে হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আদালতে তার ২২ ধারায় জবানবন্দি গ্রহণ করা হবে।

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: