প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

বগুড়ায় বর-ঘটকসহ ১১ জনের জেল-জরিমানা

   
প্রকাশিত: ১১:১৯ অপরাহ্ণ, ৩১ অক্টোবর ২০২০

ছবি: প্রতীকী

আব্দুল ওয়াদুদ, বগুড়া থেকে: বগুড়ায় বাল্যবিয়ের প্রস্তুতির সময় বর-ঘটকসহ ১১ জনকে আটক করে জেল জরিমানা দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। শনিবার (৩১ অক্টোবর) বেলা ১১টায় উপজেলার শিবগঞ্জ ইউনিয়নের ধাওয়াগীর মিলকীপুর গ্রামে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আলমগীর কবির এই সাজা দেন।

আটকরা হলেন, উপজেলার নারায়নপুর গ্রামের গোলজার রহমানের ছেলে বর গোলাম মোস্তফা (২৮), মিলকীপুর গ্রামের মোসলেম উদ্দিনের ছেলে ঘটক রফিকুল ইসলাম, তাঁর স্ত্রী আছমা বেগম, বরের ভগ্নিপতি ফাঁসিতলা গ্রামের সহিদুল ইসলাম, বরের মামা সিঙ্গারপাড়া গ্রামের আবু জাফর, মোসলেমা বেগম, শাকিলা বেগম, শারমিন বেগম, কনের নানী পাগলী বেগম, সাজু মিয়া ও গাড়ি চালক নূর আলম।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আলমগীর কবীর ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে সাক্ষ্য প্রমানের ভিত্তিতে বর গোলাম মোস্তফার ১০ হাজার টাকা, অনাদায়ে ১০ দিন জেল, ঘটক রফিকুল ইসলাকে ৫ হাজার টাকা এবং প্রত্যেকের ৩ হাজার টাকা করে মোট ৪২ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

পুলিশ জানায়, শনিবার দুপুরে উপজেলার শিবগঞ্জ ইউনিয়নের ধাওয়াগীর মিলকীপুর গ্রামের সাজু মিয়ার নাবালিকা কন্যার (১৫) সঙ্গে একই ইউনিয়নের নারায়ণপুর গ্রামের গোলজার রহমানের ছেলে গোলাম মোস্তফার (২৮) সঙ্গে বিবাহের প্রস্তুতি চলছিল। এমন সংবাদ পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকতা আলমগীর কবীর সেখানে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন। ভ্রাম্যমান আদালতের উপস্থিতি ঢের পেয়ে পালানোর সময় বর, ঘটক, আত্মীয় স্বজনসহ ১১ জন আটক করা হয়।

এআইআর/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: