মোঃ রাসেল ইসলাম

দিনাজপুর প্রতিনিধি

নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী

‘বঙ্গবন্ধু থাকলে ৩০ বছর আগে সোনার বাংলা হতো’

   
প্রকাশিত: ৬:০১ অপরাহ্ণ, ১৫ নভেম্বর ২০১৯

নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, যে দেশের মুক্তির জন্য ৩০ লাখ মানুষ জীবন দিয়েছে সেই দেশে আয়করের জন্য মেলা করতে হচ্ছে, এটা দুর্ভাগ্য। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছিল বলেই বাংলাদেশ ৪৮ বছরে সেই জায়গায় দাঁড়াড়েত পারেনি। বাংলাদেশ যে ভিত্তির উপর দাঁড়িয়ে আছে, ১৯৭২ সালের সংবিধান শাসনতন্ত্র পেয়েছি, বাংলাদেশ আগামী দিনে কিভাবে চলবে কিভাবে রুপরেখা বঙ্গবন্ধু তা আমাদের দিয়েছেন। আজকের বাংলাদেশ, জিডিটাল বাংলাদেশ, সোনার বাংলাদেশ বলছি, কিন্তু বঙ্গবন্ধুকে হত্যা না করলে বাংলাদেশ আজ থেকে ৩০ বছর আগে সোনার বাংলা হয়ে যেত।

শুক্রবার (১৫ নভেম্বর) সকালে দিনাজপুরে আয়কর মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া জেলখানায় আছেন, এই প্রধানমন্ত্রীকে দেখেছি কালো টাকাকে সাদা করতে। এটা জাতির জন্য দুর্ভাগ্য। প্রয়াত অর্থমন্ত্রী সাইফুর রহমান অর্থনীতিকে নিয়ন্ত্রণ করতেন তিনি কালো টাকাকে সাদা করেছেন। আয়কর প্রদান শুধু কর অঞ্চলের দায়িত্ব নয়, প্রতিটি মানুষের দায়িত্ব কর প্রদান করা এবং কর মেলার উদ্দেশ্য সাফল্য মন্ডিত করা।

নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশের প্রায় ৩ কোটির উপরে মানুষ আছে যারা আয়কর দিতে পারে কিন্তু তারা দিচ্ছে না। যাদের টিআর নম্বর নেওয়া আছে কিন্তু অনেকেই আয়কর দিচ্ছে না। কিন্তু কেউ কেউ রিটার্ন দাখিল করতে চায় না। এটা কিন্তু আমাদের দেশের বিরাট দুর্বলতা। এই দুর্বলতা কাটিয়ে উঠতে হবে। কেউ কেউ আয়কর দেওয়ার ক্ষেত্রে ভয়ে থাকে। এসব দূর করতে হবে আমাদের।বর্তমান সরকার জিডিটাল সরকার। আয়কর দিতে হলে কাউকে হয়রানির শিকার হতে হবে না। আমরা এখন ঘরে বসেও আয়কর পরিশোধ করা যাচ্ছে। আয়কর দেওয়ার ক্ষেত্রে তিনি বলেন, আমরা যারা আয়কর দেই তারা দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখি। দেশের স্বার্থে হলেও আয়কর পরিশোধ করা প্রয়োজন বলে মনে করেন তিনি।’

রংপুর কর অঞ্চলের কর কমিশনার আব্দুল লতিফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুল ইমাম চৌধুরী, জেলা প্রশাসক মাহমুদুল আলম এবং দিনাজপুর শিল্প ও বনিক সমিতির সভাপতি সুজা-উর রব চৌধুরী। পরে প্রধান অতিথি ফিতা কেটে ও বেলুন উড়িয়ে তিন দিনব্যাপী এই আয়কর মেলার উদ্বোধন করেন। দিনাজপুর উপ-কর কমিশনারের কার্যালয় প্রাঙ্গণে আয়োজিত এই মেলায় আয়কর জমা দেয়ার জন্য বিভিন্ন স্টল বসানো হয়েছে।

এসএ/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: