প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

মোঃ আসাদুজ্জামান

বরগুনা প্রতিনিধি

বরগুনায় ভারী বর্ষণে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত, জনজীবন বিপর্যস্ত

   
প্রকাশিত: ৯:০৭ অপরাহ্ণ, ২৩ অক্টোবর ২০২০

bdr

বরগুনায় বুধবার (২১ অক্টোবর) ভোররাত থেকে একটানা ভারী বর্ষণে জেলা শহরসহ ৬টি উপজেলা সদর ও ইউনিয়ন সমুহের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। কাচাঁ বসতঘর, রাস্তা বৃষ্টির পানিতে ধ্বসে গেছে। বরগুনা, বেতাগী, পাথরঘাটা ও আমতলী পৌরসভার গুরুত্বপূর্ণ সড়কের খানাখন্দে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়ে জনজীবনে বিপর্যায় সৃষ্টি হয়েছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টা থেকে শুক্রবার সকাল ৯ টা পর্যন্ত ২৬০ মিলি মিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে। বরগুনা জেলায় বিভিন্ন বেড়ীবাঁধের বাহিরে অবস্থিত আবাসন, আশ্রয়ন এবং বস্তিবাসীরা বৃষ্টি আর জোয়ারের পানিতে পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছে। এ ছাড়া বেড়িবাঁধের বাহিরে অবস্থিত কয়েক সহাস্রাধিক বসতবাড়িতে বৃষ্টি আর জোয়ারের পানিতে তলিয়ে আছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের তথ্যমতে, আজ শুক্রবার (২৩ অক্টোবর) বেলা ১২ টা পর্যন্ত বিষখালী, বুড়ীশ্বর (পায়রা) বলেশ্বর নদীতে জোয়ারের পানি স্বাভাবিকের চাইতে ৩ ফিট উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে উপকূলের অনেক বাড়ীতে আজ রান্না করা অবস্থা নেই। বরগুনা পৌরসভার, চরকলোনী, কলেজ সড়ক, কলেজ ব্রাঞ্চ সড়ক, ব্যাংক কলোনী, আমতলা পাড়, বাজার সড়ক, বঙ্গবন্ধু সড়ক, গোলাম সরোয়ার সড়ক, পশু হাসপাতাল সড়কে বৃষ্টির পানি জমে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। দু’দিনের বেশী অব্যাহত ভারী বর্ষণে ব্যাবসা-বাণিজ্য সহ সাধারন জনজীবনে বিপর্যায় নেমে এসেছে। সবকিছু স্থবির হয়ে আছে। বুধবার ভোর থেকে জেলা সদর ও পাথরঘাটা, বেতাগী, বামনা উপজেলায় বিদ্যুৎ আসা-যাওয়া করে শুক্রবার সকাল থেকে বিদ্যূৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে আছে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর জানায়, বর্ষা থেমে যাবার পরে ক্ষেতে থাকা সবজির ক্ষয়-ক্ষতি নিরুপন করা হবে। মৎস্য বিভাগ সুত্রে জানা গেছে, বৃষ্টির পানিতে বেশ কয়েকটি মাছের ঘের আর পুকুরে পানি বৃদ্ধি পেলেও এখন পর্যন্ত উল্লেখযোগ্য ক্ষতির খবর আসেনি।

বরগুনা জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ বলেন, আবহাওয়ার ৩ নম্বর সংকেত পেয়েই আমরা, উপজেলা নির্বাহী অফিসারদের মাধ্যমে সকল ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের নিজ নিজ এলাকার ক্ষয়-ক্ষতির সঠিক তথ্য সংগ্রহ করার জন্য বলেছি। শুকনা খাবার প্রস্তুত করা হচ্ছে, প্রয়োজনে চাহিদা মত সরবরাহ করা যাবে ইনশাল্লাহ।

বরগুনা পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক শাহাদাত হোসেনের উদ্দোগে বিভিন্ন ওয়ার্ডে বর্ষায় ক্ষতিগ্রস্তদের শুকনা খাদ্য সহ আর্থিক সহায়তা পৌঁছে দেয়া হচ্ছে। মেয়র শাহাদত হোসেন বলেন, অনেকে বসতবাড়ি বৃষ্টির পানিতে ডুবে যাওয়ায় তাদেরকে শুকনো খাবার পৌঁছে দেবার ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

এআইআর/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: