বশেমুরবিপ্রবির কম্পিউটার চুরির অভিযোগে যুবলীগ নেতা বহিষ্কার

   
প্রকাশিত: ২:১২ অপরাহ্ণ, ১৫ আগস্ট ২০২০

গোপালগঞ্জে যুবলীগ নেতা পলাশ শরীফকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) কম্পিউটার চুরির সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে তার বিরুদ্ধে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। শুক্রবার (১৫ আগস্ট) রাত সোয়া ১২টায় গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহেদ মাহমুদ বাপ্পী ও সাধারণ সম্পাদক মোল্লা মো. ফিরোজ মাহমুদ স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার যুবলীগের সভাপতি জাহেদ মাহমুদ বাপ্পী বলেন, গোপালগঞ্জ জেলা যুবলীগের সভাপতি শিহাব উদ্দিন আজম ও সাধারণ সম্পাদক এমবি সাঈফ বি. মোল্লার নির্দেশে পলাশ শরীফকে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার গোপীনাথপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি পদ থেকে বহিষ্কার করা হলো। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সংগঠনের সব ধরণের কর্মকাণ্ড থেকে তাকে বিরত থাকারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বহিষ্কৃত যুবলীগ নেতা পলাশ শরীফ গত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা থেকে ভাইস-চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এছাড়া তার ভাই আমিনুল ইসলাম শরীফ ওরফে লাচ্চু শরীফ গোপীনাথপুর ইউপির বর্তমান চেয়ারম্যান।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্টার ড. প্রফেসর নূরউদ্দিন আহমেদ জানান, ঈদের ছুটির মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির পেছন দিকের জানালা ভেঙে ৪৯টি কম্পিউটার চুরির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে গত ১০ আগস্ট গোপালগঞ্জ সদর থানায় একটি মামলা করেন। এছাড়া ২০১৮ সালে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৭টি ও ২০১৭ সালে ৫০টি কম্পিউটার চুরির ঘটনা ঘটে বলে জানান ওই কর্মকর্তা।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গোপালগঞ্জ সদর থানার এসআই মিজানুর রহমান জানান, বৃহস্পতিবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঢাকার মহাখালীর ‘জিসান ইন্টারন্যাশনাল’ হোটেলে অভিযান চালিয়ে একটি কক্ষ থেকে ৩৪টি কম্পিউটার উদ্ধার করা হয়। এঘটনায় হোটেল মালিক দুলাল মিয়া ও হোটেল বয় হুমায়ূনকে গ্রেফতার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায়, হোটেল ব্যবসায়ী গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার গোপীনাথপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি পলাশ শরীফের কাছ থেকে তারা এ কম্পিউটারগুলো ক্রয় করেছেন। এ ঘটনার পর থেকে পলাশ শরীফ পলাতক রয়েছেন। গ্রেফতারদের উদ্ধারকৃত ৩৪টি কম্পিউটারসহ গোপালগঞ্জে আনা হয়েছে।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: