প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

কামরুজ্জামান

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি

বাবা রেখে গেলেন যার ভরসায়, সেই দাদাই করলেন শিশুটিকে ধর্ষণ

   
প্রকাশিত: ১১:৫০ পূর্বাহ্ণ, ২৯ অক্টোবর ২০২০

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার নওদা হরিশপুর গ্রামে ৭ বছরের নাতনিকে ধর্ষণের অভিযোগে দাদা মোনতাজকে (৫৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার (২৮ অক্টোবর) রাত সাড়ে ১১টায় তাকে গ্রেফতার করা হয়। আজ বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) সকালে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে শিশুটির ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পূর্ণ হয়েছে। গ্রেফতার মোনতাজ আলী চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার নওদা হরিশপুর গ্রামের মৃত খোকাই মন্ডলের ছেলে।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার বেগমপুর ইউনিয়নের নওদাগাঁ হরিশপুর গ্রামের শিশুকন্যার পিতা ঢাকায় থাকেন। গত ২০ অক্টোবর শিশুকন্যাকে (৭) বাবার বাড়িতে রেখে শ্বশুরবাড়ি পার্শ্ববর্তী উজলপুর গ্রামে যান শিশুটির বাবা। শিশুটির মাও সেখানে ছিলেন। ওই রাতে নাতনিকে একা পেয়ে দাদা মোনতাজ আলী ধর্ষণ করেন। বিষয়টি মায়ের কাছে ফিরে গিয়ে ওই শিশু জানায়। এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার শিশুর মা বুধবার রাত ৮টার দিকে শ্বশুর মোনতাজ আলীর বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেন। রাতেই স্থানীয় বেগমপুর ফাঁড়ি পুলিশ মোনতাজকে গ্রেফতার করে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ইন্সপেক্টর শেখ মাহবুবুর রহমান জানান, আইনি ভাষায় ধর্ষণের বিভিন্ন প্রকার ভেদ আছে। বাকিটা ডাক্তার বলতে পারবেন। তবে পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্ত মোনতাজ ঘটনার কিছুটা স্বীকার করেছেন। এছাড়া আজ বৃহস্পতিবার সকালে ধর্ষিতা শিশুর ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয়েছে।

এআইআর/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: