প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত

বিএনপি কার্যালয়ের সামনে বিক্ষুব্ধ ছাত্রদলের তুলকালাম কাণ্ড

     
প্রকাশিত: ২:৩২ অপরাহ্ণ, ২৪ জুন ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

নেতাকর্মীদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার ও কাউন্সিলের তফসিল বাতিলের দাবিতে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ করছে ছাত্রদলের বিক্ষুব্ধরা। তারা বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় অবরুদ্ধ করে রেখেছেন। এ সময়ে কার্যালয় থেকে কাউকে বের হতে বা কাউকে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না।

এছাড়াও বিক্ষুব্ধরা কার্যালয়ের বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে ও কার্যালয় থেকে বের হওয়া নেতাকর্মীদের পিটিয়েছে বলে জানা গেছে। একটি ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনাও ঘটিয়েছে তারা।

আজ সোমবার (২৪ জুন) সকাল সাড়ে ১১টা থেকে বেলা দেড়টা পর্যন্ত তারা সেখানে অবস্থান করে বিক্ষোভ করে। এ সময় তারা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর পদত্যাগ দাবি করে। তাদের তোপের মুখে পড়েন দলটির সিনিয়র নেতৃবৃন্দ। আগামী মঙ্গলবার (২৫ জুন) আবারও একই ধরনের কর্মসূচি পালন করবে বলে জানিয়েছে ছাত্রদলের বিক্ষুব্ধরা।

এর আগে বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে সহস্রাধিক নেতাকর্মী বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার সহ বয়সসীমা তুলে দিয়ে নিয়মিত কমিটির দাবিতে একটি মিছিল নিয়ে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আসেন। এরপরে ছাত্রদলের বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা তাদের অবস্থান কর্মসূচি শুরু করে।

বিক্ষুব্ধরা কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিয়ে বিভিন্ন শ্লোগান দিতে থাকেন। এ সময় কার্যালয়ের কলাপসিবল গেট বন্ধ করে দেন।

অন্যদিকে কার্যালয়ের ভেতরে ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল ও মহানগর বিএনপির কয়েকশ’ নেতাকর্মী অবস্থান করছেন। আন্দোলনকারীরা কোনো ধরনের অপ্রীতিকর কিছু করলে তা প্রতিহতের ঘোষণা দিয়েছেন তারা। তবে তার উল্টো ঘটনা ঘটেছে। কার্যালয়ের ভেতর থেকে কেউ বের হলে তাকে মারধর করেন ছাত্রদলের আন্দোলনকারীরা এমনটা জানা যায়।

অন্যদিকে, দলটির সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন কার্যালয়ে প্রবেশ করতে গিয়ে তোপের মুখে পড়েন। বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীদের আন্দোলনের মধ্যেও আজ সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে কার্যালয়ে আসেন মিলন।

এ সময় আন্দোলনকারীরা মিলন কে ঘিরে ধরেন। পরে কার্যালয়ের সামনে থেকে ছাত্রদলের আন্দোলনকারী চলে যাওয়ার জন্য অনুরোধ করেন তিনি।

টিএএফ/এসইসি

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: