ফ্রিতে ব্রেকিং নিউজ এ্যালার্ট

বিক্ষোভে উত্তাল হোয়াইট হাউজ, মাটির নিচে লুকালেন ট্রাম্প

                       
প্রকাশিত: ১২:৫৩ অপরাহ্ণ, ১ জুন, ২০২০

লাগাতার বিক্ষোভ-আন্দোলনে রীতিমতো যেন আগুন জ্বলছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। কিছুদিন আগেই শ্বেতাঙ্গ পুলিশের অত্যাচারে মারা যান কৃষ্ণাঙ্গ যুবক জর্জ ফ্লয়েড। তাঁর মৃত্যুর পর গত ৬ দিন ধরে একটানা বিক্ষোভ চলছে করোনায় বিধ্বস্ত দেশটিতে। এদিকে রবিবার (৩১ মে) মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বাসভবন হোয়াইট হাউজের সামনে জড়ো হয় বিপুল সংখ্যক বিক্ষোভকারী। তখন তাঁদের থামানোর চেষ্টা করে পুলিশ। সেই সময়েই বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের রীতিমতো সংঘর্ষ শুরু হয়।

পরিস্থিতি দেশে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে দ্রুতই সুরক্ষিত বাঙ্কারে লুকিয়ে ফেলেন হোয়াইট হাউজের নিরাপত্তারক্ষীরা। প্রায় ঘণ্টাখানেক পর মাটির নিচের বাঙ্কার থেকে উঠার সময়ও বেশ আতঙ্কে ছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। পরিস্থিতিকে আয়ত্তে আনতে বিক্ষোভকারীদের লক্ষ্য করে কাঁদানে গ্যাস এবং ফ্ল্যাশ ব্যাং ডিভাইস ব্যবহার করে আমেরিকার পুলিশ। হোয়াইট হাউজের সামনে এই সহিংসতার পরিবেশ দেখে চমকে গেছে গোটা বিশ্ব। জানা গেছে, বিক্ষোভকারীরা হোয়াইট হাউজের সামনে জড়ো হয়ে ব্যানার ও পোস্টার নিয়ে স্লোগান দিতে থাকেন। এদিকে চলমান পরিস্থিতি মোকাবেলায় দেশটির রাজ্যগুলোতে নেয়া হয়েছে ব্যাপক সতর্ক ব্যবস্থা। অন্যদেক পরিস্থিতির উন্নতি না হলে সেনা মোতায়নের হুমকিও দেন ট্রাম্প। জানা গেছে, পুলিশ হেফাজতে থাকাকালীনই কৃষ্ণাঙ্গ যুবক জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যু হয়, আর তারপর থেকেই ওই ঘটনার বিরুদ্ধে ক্রমাগত মানুষের ক্ষোভ দানা বাঁধছে। শুক্রবারই ওই যুবকের হত্যার বিচারের দাবিতে বিক্ষোভের সময় মিনেসোটা, নিউইয়র্ক এবং আটলান্টায় পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়। লস অ্যাঞ্জেলস থেকে শুরু করে নিউইয়র্কে শুরুর দিকে বিক্ষোভকারীরা শান্তিপূর্ণভাবেই নিজেদের দাবি তুলে ধরছিলেন। কিন্তু পরের পরিস্থিতি ঘোরালো হয়, সিএনএন-এর প্রধান কার্যালয়ের সামনে দাঁড়িয়ে থাকা একটি পুলিশের গাড়িতেও অগ্নিসংযোগ করে বিক্ষোভকারীরা। রবিবার মার্কিন পুলিশের বর্বরতার বিরুদ্ধে যখন বিক্ষোভকারীরা বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন তখনও অবস্থা বেগতিক দেখে ওয়াশিংটনে কারফিউ জারি করা হয়।

আরএএস/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


পাঠকের মন্তব্য:

© স্বত্ব বিডি২৪লাইভ মিডিয়া (প্রাঃ) লিঃ
এডিটর ইন চিফ: আমিরুল ইসলাম আসাদ
বাড়ি#৩৫/১০, রোড#১১, শেখেরটেক, ঢাকা ১২০৭

ফোন: ০৯৬১১৬৭৭১৯০, ০৯৬১১৬৭৭১৯১
ইমেইল: info@bd24live.com