প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

হারুন অর রশিদ

পঞ্চগড় প্রতিনিধি

বিবস্ত্র অবস্থায় দশম শ্রেণীর ছাত্রীকে টয়লেটে ফেলে যায় ধর্ষক!

   
প্রকাশিত: ৩:৫০ অপরাহ্ণ, ৬ জুলাই ২০২০

ছবি: প্রতীকী

পঞ্চগড়ে দশম শ্রেণীতে পড়ুয়া স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে তেতুঁলিয়া মডেল থানায় মামলা হয়েছে। রোববার ৫ জুলাই ধর্ষক রুবেল (২২)কে আসামি করে মামলা দায়ের করেছে ধর্ষিত কিশোরির বাবা। পুলিশ ও কিশোরির পরিবার সূত্রে জানা যায়, দশম শ্রেণি পড়ুয়া ওই স্কুল ছাত্রীকে পাশের গ্রামের রুবেল হোসেন দীর্ঘদিন ধরেই উত্যক্ত করে আসছিল। বিদ্যালয়ে যাতায়াতের পথে কুপ্রস্তাব দিতো সেই বখাটে। বিষয়টি ওই স্কুল ছাত্রী তার বাবা মাকে জানালে তারা রুবেলের পরিবারকে অভিযোগ করে। এতে রুবেল আরও বেপরোয়া হয়ে উঠে। গত শনিবার রাতে ওই কিশোরী প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বাইরে বের হলে পেছনে তার মুখ চেপে দুইশ গজ দূরের একটি বাঁশবাগানে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করে।

এক পর্যায়ে ওই কিশোরী অজ্ঞান হয়ে পড়লে তাকে তার বাড়ির টয়লেটে বিবস্ত্র অবস্থায় রেখে চলে যায়। মাঝরাতে ওই এলাকায় ওই যুবককে দেখতে পেয়ে স্থানীয়দের সন্দেহ হয়। স্থানীয়রা তাকে আটক করার চেষ্টা করে কিন্তু সে পালিয়ে যায়। এদিকে ওই কিশোরীকে ঘরে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি শুরু করে পরিবারের লোকজন। ওই বাঁশঝাড়ে রুবেলের জুতা, আন্ডারওয়ার এবং ওই কিশোরীর জামা খুঁজে পায় তারা। কিন্তু কিশোরীকে পাওয়া যাচ্ছিল না। পরদিন সকালে পরিবারের লোকজন টয়লেটে গিয়ে বিবস্ত্র অবস্থায় খুঁজে পায় ওই কিশোরীকে। গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় তাকে পঞ্চগড় আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এখন পর্যন্ত আসামীকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। ওই কিশোরীকে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তেঁতুলিয়া মডেল থানার ওসি তদন্ত আবু সাঈদ চৌধুরী বলেন, স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ একটি মামলা হয়েছে। আসামীকে গ্রেপ্তারের জন্য আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। ওই কিশোরির ডাক্তারি পরীক্ষার প্রস্তুতি চলছে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা তেঁতুলিয়া থানার উপ পরিদর্শক আমজাদ আলী মন্ডল বলেন, ডাক্তারি পরীক্ষা শেষে আমলি আদালতের বিচারকের নিকট জবাববন্দির জন্য হাজির করা হবে। আসামীকে গ্রেপ্তারে প্রযুক্তির সাহায্য নেয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: