বিশ্বকাপ থেকে কত টাকা পাচ্ছে বাংলাদেশ?

   
প্রকাশিত: ৯:২২ পূর্বাহ্ণ, ৮ জুলাই ২০১৯

বিশ্বকাপ স্বপ্নের মৃত্যু হয়েছে আগের ম্যাচে ভারতের বিপক্ষেই। পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচটি ছিল নিতান্তই নিয়ম রক্ষার। যদিও বিশ্বকাপে মাশরাফি বিন মুর্তজার শেষ ম্যাচ বলে সেটা আর নিয়ম রক্ষার থাকেনি। এ ছাড়া পাকিস্তানের হুমকি-ধামকি বলছিল, জমে উঠতে পারে লড়াই। কিন্তু লর্ডসে জমেনি লড়াই, ফলও আসেনি পক্ষে। বিশ্বকাপে নিজেদের শেষ ম্যাচে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৯৪ রানে হেরে গেছে বাংলাদেশ।

সব থেকে অভিজ্ঞ দল নিয়ে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে অংশ নিয়েছিল বাংলাদেশ। প্রত্যাশা ছিল অনেক বড়, তারাও চেয়েছিলেন আসরটাকে নিজেদের মত করে শেষ করতে। ভারতের বিপক্ষে হারে সেমিফাইনালের স্বপ্ন শেষ হয়ে গেলেও পাকিস্তানের বিপক্ষে সুযোগ ছিল বিশ্বকাপে নিজেদের সর্বোচ্চ সাফল্য অর্জন করে দেশে ফেরার। এখন পর্যন্ত কোন আসরে ৩টির বেশী ম্যাচ জেতা হয়নি বাংলাদেশের। এবারের আসরে দক্ষিণ আফ্রিকা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং আফগানিস্তানকে হারিয়ে ৩টি জয় আগেই তুলে নিয়েছিল মাশরাফি বিন মুর্তজার দল।

পাকিস্তানকে হারালেই পঞ্চম স্থানে থেকে বিশ্বকাপ শেষ করার পাশাপাশি ইংল্যান্ড বিশ্বকাপকে নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসের আরেকটি বড় সাফল্য বলা যেত। কিন্ত শেষ পর্যন্ত সেটা হয়নি।

মাঠের খেলায় প্রত্যাশার প্রতিফলন ঘটেনি টাইগারদের। যে কারণে সেমিফাইনাল রাউন্ড শুরু হওয়ার আগেই দেশের বিমান ধরেন মাশরাফিরা। বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে যেতে না পারার কারণেই মূলত এত তড়িঘড়ি করে ফিরেছেন দেশে।

এবারের আসরের প্রতিটি ম্যাচের জন্য প্রাইজমানির ব্যবস্থা রেখেছিল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)।

স্বাভাবিকভাবেই কৌতুহলী টাইগার কোটি ক্রিকেটপ্রেমী। তাদের প্রশ্ন-বিশ্বকাপ থেকে কত টাকা পেলো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)?

১০ দলের বিশ্বকাপ অষ্টম স্থানে থেকে শেষ করেছে বাংলাদেশ। ৯ ম্যাচ খেলে ৩টিতে জয় পেয়েছেন টাইগাররা। বিপরীতে তারা হারের তিক্ত স্বাদ পেয়েছেন ৫টিতে। ১টি খেলা বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়েছে।

গ্রুপপর্বে প্রতি ম্যাচে জয়ী দলের জন্য ৪০ হাজার ডলার পুরস্কার বরাদ্দ রেখেছিল আইসিসি। টাকায় এ অংক প্রায় ৩৪ লাখ। ৩ ম্যাচ জয়ের কারণে বাংলাদেশ পাচ্ছে ১ লাখ ২০ হাজার ডলার। অর্থাৎ শুধু দক্ষিণ আফ্রিকা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আফগানিস্তানকে হারিয়ে প্রায় ১ কোটি দেড় লাখ টাকা পাচ্ছে বিসিবি।

বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়া ম্যাচ থেকেও অর্থ পাচ্ছে বোর্ড। না খেলেও পকেটে ঢুকছে ২০ হাজার ডলার। কারণ, ম্যাচে বরাদ্দ ৪০ হাজার ডলার দুই দলের মধ্যে সমানভাবে ভাগ করে দেয়া হবে। বাংলাদেশ মুদ্রামাণে যা ১৭ লাখ টাকার কাছাকাছি।

এছাড়া গ্রুপপর্বে আটকে যাওয়া প্রতিটি দলকে অতিরিক্ত ১ লাখ ডলার দেবে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা। টাকার অংকে যা আনুমানিক সাড়ে ৮৪ লাখ। বিসিবির প্রাপ্তিতে যোগ হবে এই টাকাও। সবমিলিয়ে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ থেকে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের তহবিলে জমা পড়ছে ২ কোটি টাকার ওপরে।

কেইআর/এসইসি

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: