প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / বিস্তারিত

বিয়ে পিছিয়ে দিয়ে ‘করোনাযুদ্ধে’ নারী চিকিৎসক

   
প্রকাশিত: ১২:০৪ পূর্বাহ্ণ, ১ এপ্রিল ২০২০

করোনায় কাঁপছে ভারত। শত শত মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন করোনায়। এমন অবস্থায় রবিবারই বিয়ে হওয়ার কথা ছিল ভারতের কেরালার কুন্নুরে কর্মরত চিকিত্‍সক সাফির। কিন্তু করোনার রোগীদের সেবা করার জন্যই বিয়েটা পিছিয়ে দিলেন তিনি। মনোযোগ দিয়েছেন চিকিৎসা সেবায়। ভারতের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, সাফির বিয়ে হওয়ার কথা ছিল গত রবিবার। কিন্তু তিনি সেই বিয়ের দিন পিছিয়ে দিলেন। কারণ, তিনি চিকিত্‍সক। দেশের এই পরিস্থিতির মধ্যে বিয়ে করার মতো বিলাসিতা তার জীবনে আর নেই। তার জীবনের যা পেশাগত কর্তব্য, তাই তিনি পালন করলেন। বিয়ের দিনটা পুরোটাই কাটল হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে। রবিবার চিকিত্‍সক হিসেবে রোগী সেবা করেই দিন কাটালেন তিনি।

সাফির স্বামী দুবাইয়ের ব্যবসায়ী। ২৯ মার্চ বিয়ের জন্যই তিনিও তৈরি ছিলেন। কিন্তু কনে বলে দিল, এখন বিয়ে হবে না। আগে দেশের অবস্থা ভালো হউক। আপাতত চিকিত্‍সক হিসেবে কাজ করতে চান তিনি। তবে এই নিয়ে বিশেষ কথা বলতে চান না সাফি। তিনি বলেন, দেখুন বিয়ে অপেক্ষা করতে পারে, অসুস্থ হয়ে যারা হাসপাতালে ভর্তি, তারা অপেক্ষা করতে পারবেন না। তাই আমি আমার কর্তব্য পালন করছি মাত্র। এর বাইরে কিছুই নয়। এটা নিযে এতো আলোচনার কোনো প্রয়োজন নেই।

রবিবারই বিয়ের পোশাকে থাকার কথা ছিল তার কিন্তু সেদিনই তিনি হাসপাতালে পরে আছেন পিপিই। তিনি বললেন, ‌বন্ধুরা এই নিয়ে ইয়ার্কি মারছে। বাড়ির লোকেরাও হাসি ঠাট্টা করছে, কিন্তু সবার মানসিক সমর্থন ছাড়া আমি এই সিদ্ধান্ত নিতে পারতাম না। মা বাবা, আমার কথায় একবারে রাজি হয়ে গিয়েছিলেন, আমার হবু স্বামীও রাজি হয়েছেন একবারেই। আমি তাদের কাছেও কৃতজ্ঞ।

কেএ/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: