ব্রুনাইস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশনে শোক দিবস পালিত

   
প্রকাশিত: ২:০৯ অপরাহ্ণ, ১৬ আগস্ট ২০২০

মোকলেস খান: যথাযথ মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে ব্রুনাইস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশনের উদ্যোগে স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৫তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস ২০২০ পালন করা হয়।

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে হাইকমিশন কর্তৃক আয়োজিত কর্মসূচির মধ্যে ছিল বঙ্গবন্ধুসহ ১৫ই আগস্ট এর সকল শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে পবিত্র কোরআন খতম, জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ, বিশেষ মোনাজাত, জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন, দোয়া ও মোনাজাত, শহীদদের পূণ্য স্মৃতির প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করে এক মিনিট নিরবতা পালন, বঙ্গবন্ধুর জীবনীর উপর বিশেষ প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন এবং আলোচনা সভা।

শনিবার (১৫ আগস্ট) সকাল ১০টায় হাইকমিশনার, এয়ার ভাইস মার্শাল (অব:) মাহমুদ হোসেন দূতাবাস প্রাঙ্গণে দূতাবাসের সকল কর্মকর্তা, কর্মচারী ও প্রবাসী বাংলাদেশীসহ বিদেশীদের উপস্থিতিতে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করার মাধ্যমে দিবসটির কর্মসূচীর সূচনা করেন। এসময়ে উপস্থিত সকলেই কালো ব্যাজ ধারন করেন। জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করার পর ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট শাহাদাৎ বরণকারী বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের সদস্যবৃন্দের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতে হাইকমিশনার হাইকমিশনের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী ও প্রবাসী বাঙ্গালীদের নিয়ে জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। অতঃপর হাইকমিশনার, কাউন্সেলর ও দূতালয় প্রধান এবং প্রথম সচিব (শ্রম) কর্তৃক মহামান্য রাষ্ট্রপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করা হয়। এরপর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনীর উপর নির্মীত “সোনালী দিনগুলো” প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন শেষে জাতির পিতার অবদানের উপর মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন ব্রুনাইতে বসবাসরত উপস্থিত বাংলাদেশের নাগরিকগণ। মুক্ত আলোচনায় বক্তাগণ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কর্মময় জীবনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। সমাপনী বক্তব্যে হাইককমিশনার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও ১৫ আগস্টের অন্যান্য শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। এছাড়া তিনি বাংলাদেশের মুক্তি সংগ্রাম ও জাতি গঠনে বঙ্গবন্ধুর অশেষ অবদানের কথা তুলে ধরেন। সেই সাথে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে ব্রুনাইস্থ প্রবাসী বাংলাদেশীদের আরো গঠনমূলক ভূমিকা পালনের আহবান জানান। এছাড়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং ১৫ আগস্টে শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে শুক্রবার পবিত্র কোরআন খতম এবং বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। এতে অংশ নিয়েছে ব্রুনাইয়ের সুলতান শরীফ আলী ইসলামিক বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত বিদেশী শিক্ষার্থীবৃন্দ।

দূতাবাস কর্তৃক আয়োজিত জাতীয় শোক দিবস কর্মসূচীতে প্রবাসী বাংলাদেশীসহ আমন্ত্রিত বিদেশী অতিথিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। উপস্থিত অতিথিদের ঐতিহ্যবাহী বাংলাদেশী খাবার পরিবেশনের মাধ্যমে আপ্যায়ন করা হয়।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: