প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / বিস্তারিত

বড় সংঘাতে মুখোমুখি হতে পারে ভারত-চীন, উদ্বিগ্ন বিশেষজ্ঞরা

   
প্রকাশিত: ১২:০৪ অপরাহ্ণ, ২৬ মে ২০২০

গত কয়েকদিন ধরে আলোচনার শীর্ষে ভারত-চিন সংঘাত। বছর কয়েক আগে ডোকলামে দেখা গিয়েছিল এক সংঘাত। প্রায় ৭৩ দিন মুখোমুখি দাঁড়িয়ে ছিল ভারত ও চিনের সেনাবাহিনী। এরপর দু’দেশের সম্পর্ক আর সেভাবে তিক্ত হতে দেখা যায়নি। কিন্তু এবারের সংঘাত সহজে মিটবে না বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।গত কয়েকদিন ধরে লাইন অফ অ্যাকচুয়াল কন্ট্রোলের কাছে লাদাখে চোখে চোখ রেখে দাঁড়িয়ে আছে দুই দেশের সৈন্য। মূলত প্যাংগং তোসো লেক ও গালোয়ান ভ্যালির কাছে এই ঘটনা ঘটছে। ওই অঞ্চলে চিনের অন্তত ২০০০-২৫০০০ সৈন্য এগিয়ে এসেছে। এ খবর দিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম কলকাতা২৪।

প্রাক্তন আর্মি কমান্ডার লেফট্যানেন্ট জেনারেল ডিএস হুদা বলেন, ‘এটা মোটেই স্বাভাবিক ঘটনা নয়। বিশেষ গালোয়ান ভ্যালিতে এভাবে চিনা সৈন্যের আনাগোনা বেশ উদ্বেগের বলে উল্লেখ করেছেন তিনি, কারণ ওই অঞ্চল নিয়ে দুই দেশের মধ্যে কোনও বিতর্ক নেই। অথচ সেখানেই সৈন্য মোতায়েন করেছে চীন। কূটনীতি বিশেষজ্ঞ অশোক কে কন্ঠও একই কথা বলেন। তিনি বলেন, আগেও এভাবে চিনে সেনার এগিয়ে আসার ঘটনা ঘটেছে। তবে এবার বিষয়টা বেশ উদ্বেগের। এটা সাধারণ ঘটনা নয়। ২০১৭-তে ডোকলামে মুখোমুখি দাঁড়িয়েছিল দুই দেশের সেনা। এবারের সংঘাত তার থেকেও বড় হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন অনেকে। গত ৫ মে সন্ধেয় চিনের ২৫০ সেনা যে ঔদ্ধত্য প্রদর্শন করেছে, তার পর থেকেই পরিস্থিতি আরও অবনতির দিকে চলে গিয়েছে। একই রকম ঘটনা ঘটে ৯ মে নর্থ সিকিমে। ৫ তারিখে রীতিমত লোহার রড নিয়ে সংঘাত চলে দুই পক্ষের মধ্যে। পাথর ছোঁড়ার ঘটনা ও ঘটে।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: