ভারতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার বাংলাদেশি তরুণী

   
প্রকাশিত: ৫:১২ অপরাহ্ণ, ২ অক্টোবর ২০১৯

ছবি: প্রতীকী

ভারতের বনগাঁওয়ে দালালদের হাতে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বাংলাদেশি এক নারী। বাংলাদেশ থেকে অবৈধ পথে কাজের খোঁজে ভারতে যান ঐ নারী। কিন্তু সেখানে গিয়ে এক ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হতে হয় তাকে।

বাংলাদেশের বেনাপোল বন্দর সংলগ্ন ভারতের পেট্রোপোল থানা পুলিশের কাছে ঐ তরুণী জানায়, মাসখানেক আগে বাংলাদেশ থেকে কাজের খোঁজে অবৈধভাবে পশ্চিমবঙ্গের বনগাঁয় গিয়েছিলেন তিনি। পরে সেখান থেকে গুজরাটের সুরাটে চলে যান তিনি।তবে সেখানে কাজের পরিস্থিতি খারাপ হওয়ায় দেশে ফিরে আসার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। সে কারণে আবারও বনগাঁয় ফিরে যান।

এদিকে, কোন বৈধ কাগজপত্র না থাকায় সীমান্ত পার হওয়ার জন্য বনগাঁর নরহরিপুরের দুই দালালের সঙ্গে যোগাযোগ করেন ওই তরুণী। সীমান্ত পার করে দেওয়ার জন্য চুক্তিও হয় তাদের মধ্যে।

কয়েক দিনের মধ্যেই তাকে চোরাইপথে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেওয়ার কথা জানানো হয়। এই সময়টায় তিনি ওই দালালদের আশ্রয়েই ছিলেন। সেই সুযোগেই ওই দুই দালাল এই তরুণীকে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ করেছে ঐ তরুণী।

ঘটনা শোনার পর তরুণীকে পেট্রাপোল থানা পুলিশ আটক করে তদন্ত শুরু করেছে। তবে অভিযুক্ত ওই দুই দালালকে এখনও আটক করা সম্ভব হয়নি।

এসএআর/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: