মাজেদের ফাঁসি কার্যকর

   
প্রকাশিত: ১২:০৭ পূর্বাহ্ণ, ১২ এপ্রিল ২০২০

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হ’ত্যা মামলায় মৃ’ত্যু’দণ্ড’প্রাপ্ত ক্যাপ্টেন (বরখাস্ত) আবদুল মাজেদের ফাঁসির কার্যকর করা হয়েছে। শনিবার (১১ এপ্রিল) দিনগত রাত রবিবার (১২ এপ্রিল) রাত ১২টা ১ মিনিটে তার ফাঁ’সি কার্যকর করা হয়। বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন আইজি প্রিজন মোস্তফা কামাল। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর খু’নি মাজেদকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে রায় কার্যকর করা হয়েছে।

এরআগে বঙ্গবন্ধুর খু’নি মাজেদের স্ত্রী সালেহা বেগম কে ডেকে পাঠিয়েছে কারা কর্তৃপক্ষ। আজ শনিবার (১১ এপ্রিল) রাত এগারোটায় মাজেদের সঙ্গে শেষ দেখা করতে যাচ্ছেন তার স্ত্রী ও আত্মীয়রা। ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারে (কেরানীগঞ্জ) মাজেদের ফাঁ’সি কার্যকর করতে জল্লাদসহ সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করে কারা কর্তৃপক্ষ। গণমাধ্যমকে ডেপুটি জেলার সমমর্যাদার একজন কর্মকর্তা জানান, মাজেদের ফাঁ’সির জন্য সবকিছু প্রস্তুত করা হয়েছে। যেকোনো মুহূর্তে কার্যকর হবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হ’ত্যার সঙ্গে সরাসরি জড়িত ক্যাপ্টেন (বরখাস্ত) আবদুল মাজেদের ফাঁ’সি।

শুক্রবার (১০ এপ্রিল) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হ’ত্যা মামলায় মৃত্যু’দণ্ড’প্রাপ্ত আবদুল মাজেদের সঙ্গে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে সাক্ষাৎ করেছেন তাঁর স্বজনরা। শুক্রবার (১০ এপ্রিল) সন্ধ্যায় কারা কর্তৃপক্ষ মাজেদের সঙ্গে দেখা করার জন্য স্বজনদের ডেকে পাঠান। কেরানীগঞ্জে কেন্দ্রীয় কারাগারের কনডেম সেলে মৃত্যুর প্রহর গুনছেন মাজেদ। তৈরি রয়েছে ১০ সদস্যের জল্লাদ দল।

উল্লেখ্য, প্রায় দুই দশক ধরে পলাতক আবদুল মাজেদকে গত সোমবার মধ্যরাতে মিরপুর থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট। পরদিন মঙ্গলবার দুপুরে মাজেদকে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতে হাজির করা হয়। এরপর তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন বিচারক। পরদিন বুধবার মৃ’ত্যুর পরোয়ানা পড়ে শোনানোর পর সব দোষ স্বীকার করে রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চায় আবদুল মাজেদ।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: