প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / বিস্তারিত

মিনিটে ৬০০ গুলি করা ‘অ্যাপাচি’ ভারতের হাতে যেভাবে হলো

   
প্রকাশিত: ১০:৩৩ অপরাহ্ণ, ৮ জুলাই ২০২০

লাদাখ সীমান্ত নিয়ে চীনের সঙ্গে উত্তেজনায় ভারত এবার সীমান্তে মোতায়েন করেছিল ঘাতক অ্যাপাচি হেলিকপ্টার। মে মাসের সংঘাতের পরেই যুক্তরাষ্ট্রের বোয়িং কোম্পানির সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করে ভারত। অ্যাপাচি এএইচ-৬৪ এর জন্য যা করা দরকার ছিল সেটাই করেছে তারা। এই জন্য বিশেষ ভিসা প্রদানসহ যা করা দরকার সেটাই করছে ভারত। লাদাখে যুদ্ধাবস্থা হতে পারে এমন আশঙ্কায় শুরু থেকেই প্রস্তুতি রেখেছিল ভারত। আগেই হাতে চলে এসেছিল ১৭টি। সেগুলো কাজে লাগানো হচ্ছিল। বাকি পাঁচটি চলতি বছরের মার্চের মধ্যে ভারতে পৌঁছে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে যাওয়ার কারণে সেই প্রক্রিয়া থমকে যায়।

এবার মে মাসের শুরুর দিকে চীনের সঙ্গে সীমান্ত নিয়ে উত্তেজনা শুরুর পর একটুও সময় নষ্ট করেনি ভারত। দ্রুত বোয়িংয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। লাদাখে মোতায়েন করা হয় অত্যাধুনিক মার্কিন এএইচ-৬৪ অ্যাপাচি হেলিকপ্টার।

অ্যাপাচি এমন একটি ঘাতক হেলিকপ্টার যার মুহূর্তের মধ্যে শূন্যে বাঁক খাওয়ার দুর্ধর্ষ ক্ষমতা রয়েছে। একই সঙ্গে অত্যন্ত নীচু দিয়ে উড়তে পারে। পাশাপাশি, উচ্চতা এবং ঝোপঝাড় ব্যবহার করে শুত্রুপক্ষ থেকে নিজেকে লুকিয়ে রাখতে পারে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, তিনশ কোটি বিলিয়ন ডলারে কেনা ২২ টি অ্যাপাচি হেলিকপ্টার ভারতের সামরিক শক্তির ক্ষেত্রে গেমচেঞ্জার হয়ে উঠতে চলেছে। অন্যথায় ভারতকে মাঝারি ক্ষমতা সম্পন্ন রাশিয়া এম-১৭ এবং কার্যত অবলুপ্ত হতে চলা এমআই-২৬ কপ্টারের ওপর নির্ভর করতে হত।

কেএ/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: