প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / বিস্তারিত

মিয়ানমারে খনি ধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১১৩

   
প্রকাশিত: ৩:৪৯ অপরাহ্ণ, ২ জুলাই ২০২০

মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলীয় কাচিন প্রদেশের এইচপাকান্ত শহরের একটি জেড পাথরের খনি ধসে কমপক্ষে ১১৩ জন নিহত হয়েছেন। এই ঘটনায় এখনো নিখোঁজ রয়েছেন অনেক শ্রমিক। আজ বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) সকালে এই খনি ধসের ঘটনা ঘটে বলে মিয়ানমার ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। জানা গেছে, ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে খনিটি ধসে পড়ে। এই ঘটনার মৃত্যুর সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন মিয়ানমার সরকারের মন্ত্রী ইউ টিন সো।

আন্তর্জাতিক বেশকিছু প্রতিবেদনে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে, কাচিন রাজ্যের হাকান্ত এলাকার ওই খনি ধসে পড়ার ঘটনায় হয়তো আরও অনেকেই মাটি চাপা পড়েছেন। দমকল বাহিনী জানিয়েছে, ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে ওই খনিটি ধসে পড়েছে। দমকল বাহিনীর সামাজিক মাধ্যমে এক পোস্টে জানানো হয়েছে, এখন পর্যন্ত ১১৩টি মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারকাজ চালিয়ে যাওয়া হচ্ছে। বিশ্বের বৃহত্তম পান্না খনি মিয়ানমারে অবস্থিত। দেশটিতে প্রতি বছরই বিভিন্ন খনি থেকে মূল্যবান এই রত্ন পাওয়া যায়। যদিও সাম্প্রতিক সময়ে দেশটিতে বেশ কয়েকবার খনি ধসের ঘটনা ঘটেছে। ফলে প্রাণ হারিয়েছে বহু মানুষ। এর আগে গত বছর একটি খনিতে দুর্ঘটনায় শতাধিক মানুষ প্রাণ হারায়।

আরএএস/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: