প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

মুরগির রোস্ট খাওয়া নিয়ে অভিমান, অতঃপর আত্মহত্যা

   
প্রকাশিত: ১১:২০ অপরাহ্ণ, ৩ জানুয়ারি ২০২০

ছবি: প্রতীকী

বাজার থেকে বাবা মুরগি পাঠালেও রোস্টের মসলা না পাঠানোয় অভিমান হয় স্বর্ণার। কারন বাবার কাছে মুরগির রোস্ট খেতে চেয়েছিল স্কুলছাত্রী স্বর্ণা আক্তার (১৪)। অভিমানের ওপর আরও অভিমান বেড়ে যায় যখন ছোট ভাইটি বলে, ‘তুই শুধু খাই খাই করিস’। এর ফলটা হয় দাড়ায় ভয়াবহ। ঘরের দরজা বন্ধ করে ওড়না দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে স্বর্ণা। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার (৩ জানুয়ারি) দুপুর ২টার দিকে বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার রায়েন্দা ইউনিয়নের উত্তর রাজাপুর গ্রামে।

নিহত স্বর্ণা পল্লী চিকিৎসক আ. রশিদ মোল্লার দ্বিতীয় স্ত্রীর প্রথম সন্তান। সে রাজাপুর বালিকা বিদ্যালয় থেকে জেএসসি পাস করে এই বছর নবম শ্রেণিতে বিজ্ঞান বিভাগে ভর্তি হয়েছিল। নিহতের বাবা রশিদ মোল্লা বলেন, মেয়েটি মুরগির রোস্ট খেতে চাইলে দুপুরে স্থানীয় বাজার থেকে মুরগি কিনে পাঠাই। কিন্তু রোস্টের মসলা পাঠাতে ভুলে যাই। এতে তার রাগ হয়। এসময় ছোট ছেলে সবুজ বলে আব্বা বলেছে তুই শুধু খাই খাই করিস। তারপর সে ঘরে ঢুকে দরজা বন্ধ করে দেয়। দুপুর ২টার দিকে ঘরের দরজা বন্ধ দেখে ছোট ছেলে সবুজ অন্য রুম থেকে ঢুকে দেখে মেয়েটি ওড়না গলায় পেঁচিয়ে ঝুলে আছে। এ সময় ছেলের চিৎকার শুনে ঘরে গিয়ে দেখি মেয়েটি আর নেই। এ বিষয়ে শরণখোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসকে আব্দুল্লাহ আল সাইদ জানান, খোঁজ-খবর নিয়ে আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

এফএএস/এসএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: