প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

মৃত্যুর আগে মাটিতে হত্যাকারীদের নাম লিখে গেলেন আশরাফ

   
প্রকাশিত: ১২:৩৪ পূর্বাহ্ণ, ১ অক্টোবর ২০২০

মুন্সিগঞ্জের লৌহজংয়ে যাত্রীবেশে চালকের গলা কেটে হত্যার পর অটোরিকশা ছিনতাই করেছে দুর্বৃত্তরা। তবে তার পরের ঘটনা অবাক করে দিয়েছে সবাইকে। মৃত্যুর আগে চালক আশরাফ নিজেই মাটিতে লিখে যান ঘাতকদের নাম। মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) রাতে লৌহজং উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের চানখার বাড়ি নামক এলাকায় আশরাফুলের ইজিবাইকটি ছিনতাইয়ের চেষ্টা চালায় একদল দুর্বৃত্ত। তারই সূত্র ধরে, হাসান, রাজা ও তাদের সহযোগী রুবেলকে আটক করে পুলিশ। অটোরিকশা চালক আশরাফুলের অকাল মৃত্যুতে ভেঙে পড়েছেন তার স্বজনরা। প্রিয়জন আর ফিরবেন না, তবু ঢাকা মেডিকেলের জরুরি বিভাগের সামনে অপেক্ষায় ভাই।

পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার রাতে লৌহজং উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের চানখার বাড়ি নামক এলাকায় আশরাফুলের ইজিবাইকটি ছিনতাইয়ের চেষ্টা চালায় একদল দুর্বৃত্ত। এসময় বাঁধা দিলে দুর্বৃত্তরা তার গলা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাত করে ইজিবাইকটি ছিনিয়ে নেয়। এর কিছুক্ষণপর জ্ঞান ফিরলে রক্তাক্ত অবস্থায় আশরাফ গোয়ালীমান্দ্রা বটতলা এলাকায় যান। পরে স্থানীয়রা তাকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। গুরুতর আহতাবস্থায় ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে আসা হলে চিকিৎসক আশরাফুলকে মৃত ঘোষণা করেন।

পুলিশ জানায়, ছুরিকাঘাতের পর আশরাফুল মাটিতে হাসান ও রাজা নামে দুজনের নাম এবং একটি আংশিক মোবাইল নাম্বার লিখে রেখে যান। সেই সূত্র ধরে হাসান ও রাজাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এছাড়া তাদের দেয়া তথ্যানুযায়ী রুবেল নামের আরেক যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। নিহত আশরাফুলের মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। তার বাড়ি মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগর থানার বাগরা এলাকায়। এ ঘটনায় লৌহজং থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে পরিবার।

কেএ/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: