যুক্তরাষ্ট্রে স্ত্রীকে গুলি করে হত্যার পর বাংলাদেশির আত্মহত্যা!

                       
প্রকাশিত: ৭:০৫ অপরাহ্ণ, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০
ছবি: ইন্টারনেট

যুক্তরাষ্ট্রের অ্যারিজোনা অঙ্গরাজ্যের ফিনিক্স শহরের একটি বাসা থেকে এক বাংলাদেশি দম্পতির গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ২৭ সেপ্টেম্বর সকালে এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তারা বলছেন, স্ত্রীকে গুলি করে হত্যার পর স্বামী নিজেও আত্মহত্যা করেছেন। ওই দম্পতির মৃত্যুর ঘটনা তারা তদন্ত চলছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, বাংলাদেশের মাগুরার আবুল আহসান হাবিব (৫২) ও তার স্ত্রী সৈয়দা সোহেলী আকতার (৪৩) পারিবারিক ভিসায় দুই ছেলেসহ যুক্তরাষ্ট্রে এসে ২০০৮ সালে অ্যারিজোনায় থাকতে শুরু করেন। হাবিব একটি রেস্তোরাঁয় কাজ করতেন। আর চায়না একটি বিউটি পার্লার চালাতেন। কিন্তু মহামারির মধ্যে দু’জনেই কর্মহীন হয়ে পড়েছিলেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ফিনিক্স সিটিতে বসবাসরত ফোবানার প্রধান নির্বাচন কমিশনার মাহবুব রেজা।

ফিনিক্স পুলিশ বিভাগ জানিয়েছে, কলহের জের ধরে স্বামীকে ধরার জন্য সোহেলী আক্তার জরুরি সেবার ৯১১ নম্বরে কল করেন। পরে পুলিশ বাসায় গিয়ে সোহেলীর সঙ্গে তার নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে কথা বলে। এরপর পুলিশ বাসা থেকে ফিরে আসে, বের হয়ে যান তার পুত্রও। পরে স্বামী ঘরে ফিরে এলে সোহেলী আবার ৯১১ নম্বরে কল দিয়ে পুলিশ ডাকেন। তখনই পুলিশ ওই বাসায় রওয়ানা দিলেও গুলির শব্দ শুনতে পায়। পরে সেই বাসায় গিয়ে দুজনের গুলিবিদ্ধ মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে।

ফিনিক্স পুলিশ বিভাগের সার্জেন্ট টমি থমসন বলেন, এটি একটি মর্মান্তিক ঘটনা। দুজনের পরিবারের প্রতি আমাদের সমবেদনা রইলো।

কেএ/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।


লাইফ স্টাইল

লাইফ স্টাইল

পাঠকের মন্তব্য:

বর্তমানে জাতীয় সংসদ, নির্বাচন কমিশন সবিচালয়, আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জামায়াত, জাতীয় পার্টি, অপরাধ, সচিবালয়, আদালত, ব্যবসা-বাণিজ্য, শিক্ষা, খেলাধুলা, বিনোদনসহ প্রায় সব গুরুত্ত্বপূর্ণ বিটেই রয়েছে একঝাঁক তরুণ সাংবাদিক। এছাড়া সারাদেশে বিডি২৪লাইভ ডটকম’র রয়েছে প্রতিনিধি।

লাইফ স্টাইল

নিবন্ধন নং- ০০০৩

© স্বত্ব বিডি২৪লাইভ মিডিয়া (প্রাঃ) লিঃ
এডিটর ইন চিফ: আমিরুল ইসলাম আসাদ
বাড়ি#৩৫/১০, রোড#১১, শেখেরটেক, ঢাকা ১২০৭

ফোন: ০৯৬৭৮৬৭৭১৯০, ০৯৬৭৮৬৭৭১৯১
ইমেইল: [email protected]