রাজধানীর গ্রিনরোডের ঝুপড়ি ঘরে বসে জাকারবার্গের ফেসবুককে টেক্কা!

   
প্রকাশিত: ৯:৩০ পূর্বাহ্ণ, ২৫ নভেম্বর ২০২০

ছবি: ইন্টারনেট

সামাজিকতা রক্ষা থেকে শুরু করে জীবন জীবিকা চালাতে ব্যবসা-বাণিজ্য সব কিছুতেই জড়িয়ে আছে ফেসবুক। অথচ বাংলাদেশে ব্যবসা বাড়াতে এই প্রতিষ্ঠানটিকেই হোঁচট খেতে হচ্ছে। কেননা এজন্য দরকার দেশের কোডসহ বিটিসিএল-এর নিবন্ধন। অথচ ফেসবুক ডটকম ডট বিডি নামে ২০০৮ সালে বিটিসিএল এর কাছ থেকে ডোমেইন কিনে রেখেছে এ-ওয়ান সফটওয়ার নামের দেশের একটি প্রতিষ্ঠান।

রাজধানীর গ্রিনরোডের ঝুপড়ি ঘরে বসে টেক্কা দিচ্ছে মার্ক জাকারবার্গের ফেসবুককে। শুনে অবাক হলেও ঘটনা সত্য। এ নিয়ে আদালতে পর্যন্ত যেতে হয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুককে। গ্রিনরোডোর এ ওয়ান কোম্পানির স্বত্তাধিকারী বলছে, তারাও ছেড়ে কথা বলবে না ফেসবুককে।

এরই মধ্যে এ ওয়ান কোম্পানিটি ফেসবুক ডটকম ডট বিডি ডমেইনের দাম হেঁকেছে ৬ মিলিয়ন ডলার বা ৫১ কোটি টাকা। তাতেই গোল বেধেছে। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ আইনী নোটিশ পাঠিয়েও এ ওয়ানকে কাবু করতে পারেনি। সে কারণে ফেসবুক হেঁটেছে মামলার পথে।

ফেসবুকের নিযুক্ত আইনজীবী বলেন, ‘ফেসবুক ডট কম ডট বিডির মাধ্যমে ফেসবুকের রূপ ধারণ করে অনেক প্রকার বেআইনি কর্মকাণ্ডে জড়িত হওয়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যায় না।’

রাজধানীর গ্রিন রোডের সরু গলির ভেতর পুরাতন একটি ভবনের চতুর্থ তলায় এ ওয়ানের অফিস। দুই রুমের অফিসটিতে কয়েকটি কম্পিউটার আর কিছু তারের স্তুপ ছাড়া কিছুই নেই। এ ওয়ান মূলত এলাকায় ইন্টারনেট সংযোগের ব্যবসার করে। এই প্রতিষ্ঠানের স্বত্ত্বাধিকারী জানান, তারা আইন মেনেই ডোমেইন কিনেছেন লড়তে চান আদালতেও।

এ ওয়ান সফটওয়্যার এর মালিক মির্জা বায়েজিদ হাসান বলেন, ‘যেহেতু ফেসবুক ইতোমধ্যে মামলা করেছে আমাদের তো কোর্টের মাধ্যমে বিষয়টা নিয়ে কথা বলতে হবে।’

যদিও প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বিষয়টির ফয়সালা আদালতে হলেও এক্ষেত্রে ফেসবুক রয়েছে সুবিধাজনক অবস্থানে।

প্রযুক্তিবিদ সালাউদ্দিন সেলিম বলেন, ‘এ ওয়ান সফটওয়্যারটি ফেসবুকের নামে ট্রেডমার্কটি অবশ্যই নেই। সেক্ষেত্রে এ ওয়ান সফটওয়্যারের হেরে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।’

ঝুপড়ি ঘরে বসে মার্ক জাকারবার্গের ফেসবুককে টেক্কা দেয়ার ঘটনাটি তাই ব্যাপক আলোচনার জন্ম দিয়েছে।

এআইআর/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: