প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

শামসুজ্জোহা বাবু

রাজশাহী প্রতিনিধি

রাজশাহীতে ত্রাণ চাইতে গিয়ে মার খেল বিধবা নারী

   
প্রকাশিত: ১১:২৮ পূর্বাহ্ণ, ৮ এপ্রিল ২০২০

রাজশাহীর চারঘাটে সাহায্য চাইতে গিয়ে মেম্বারের লোকজনের প্রহারের শিকার হলেন স্বামী পরিত্যক্তা রেজিয়া বেগম নামের এক নারী। বর্তমানে তিনি আহত অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বেডে কাতরাচ্ছেন। মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) সকালে উপজেলার চারঘাট ইউনিয়নের চাদপুর কাকরামারী ঘোষপাড়া এলাকায় প্রহারের ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা আহত অবস্থায় রেজিয়া বেগম (৪৫) নামের ওই নারীকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। এ বিষয়ে আহত রেজিয়া বেগম ১০ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় একটি অভিযোগ করেছেন।

আহত রেজিয়ার বোনের মেয়ে রিমা জানান, মঙ্গলবার সকালে রেজিয়া বেগম ইউপি সদস্য নৈয়ব আলীর কাছের লোক হিসেবে পরিচিত নাজমুল হকের কাছে যান ত্রাণের স্লিপ আনতে। এসময় নাজমুল হক স্লিপ তাকে স্লিপ দেয়নি। এনিয়ে ও নারীর সাথে বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে তাকে স্লিপ না দিয়ে তার শ্যালক বজলু অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করতে থাকেন। প্রতিবাদ করলে নাজমুল হক ও বজলুসহ তার পরিবারের সদস্যরা লাঠি সোঠা দিয়ে রেজিয়া বেগমকে এলোপাথারী মারপিট করে গুরুতর আহত করে। পরে স্থানীয়রা আহত অবস্থায় রেজিয়া বেগমকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। বিষয়টি সম্পর্কে ইউপি সদস্য নৈয়ব আলীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন ঘটনাটি দু:খজনক। মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সমিত কুমার কুন্ডু বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু আসামীরা কেউ ছিলেন না। তারা সকলেই পলাতক রয়েছেন। দ্রুত তাদের আইনের আওয়তায় এনে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: