প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

রফিকুল ইসলাম

বান্দরবন প্রতিনিধি

লামায় মায়ের সামনে জিপের চাকায় পিষ্ট হল ৪ বছরের শিশু

   
প্রকাশিত: ৮:১৩ অপরাহ্ণ, ৪ আগস্ট ২০২০

রাস্তার পাশে নিজেদের ছাগল নিয়ে খেলছিল ৪ বছরের শিশু আবুল হায়াত মোঃ তারেক। পাশে বসে আছে মা সেলিনা আক্তার। হঠাৎ করে একটি জিপ গাড়ি রাস্তার বাহিরে এসে মায়ের চোখের সামনে শিশুটিকে চাপা দেয়। গাড়ির চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় শিশুটির। চোখের সামনে নিজের নাড়িছেঁড়া ধনকে ছটফট করে মরতে দেখে পাগল প্রায় মা।  মঙ্গলবার (০৪ আগস্ট) দুপুর ১টায় লামা-চকরিয়া সড়কের ইয়াংছা বদুরঝিরি এলাকায় এই ঘটে। ৪ বছরের শিশু আবুল হায়াত মোঃ তারেক বদুরঝিরি এলাকার মোঃ ইব্রাহীম ও সেলিনা আক্তারের ছেলে।

লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মিজানুর রহমান জিপের চাকায় পিষ্ট হয়ে শিশু নিহতের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাটি খুবই মর্মান্তিক। দুঃখের বিষয় হচ্ছে, এইরকম দুর্ঘটনায় আহত বা নিহতের পরিবার মামলা না করে বিষয়টি সামাজিক ভাবে মীমাংসার চেষ্টা করে। ক্ষতিগ্রস্তরা মামলা করতে না চাওয়ায় বা এড়িয়ে গেলে অপরাধীদের আইনের আওতায় আনা যায়না। এই ঘটনায় কেউ মামলা না করলেও প্রয়োজনে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করবে। জিপ গাড়িটি আটক করে ইয়াংছা চেকপোস্টে রাখা হয়েছে। গাড়ির লাইসেন্স নাম্বার ঢাকা- ল ৮২।

ঘটনার প্রত্যেক্ষদর্শী নিহত শিশুর মা সেলিনা আক্তার বলেন, দুপুর ১টার দিকে লামা-চকরিয়া সড়কের পাশে আমি ছেলেকে সাথে নিয়ে ছাগল ছড়াচ্ছিলাম। লামার দিক থেকে আসা চকরিয়াগামি জিপ গাড়ি ঢাকা-ল ৮২ রাস্তার পাশে পিয়াংকা নামে এক মহিলাকে দুষ্টামি করে গাড়ি দিয়ে চাপা দিয়ে ভয় দেখাতে গিয়ে রাস্তার বাহিরে এসে আমার ছেলেকে চাপা দেয়। ড্রাইভারের অবহেলা ও দুষ্টামির জন্য আমার ছেলেটি মর্মান্তিক ভাবে মৃত্যু হয়েছে। উদ্বেগের বিষয় হল, এই ঘটনায় নিহত শিশুর পরিবারের লোকজনকে আইনীভাবে অগ্রসর হতে অনীহা প্রকাশ করতে দেখা যায়।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: