শীঘ্রই ৬ লাখ পার হবে বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃতের সংখ্যা

   
প্রকাশিত: ৮:৩৯ পূর্বাহ্ণ, ১৫ জুলাই ২০২০

গেল ডিসেম্বরে চীন থেকে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে গোটা বিশ্বে। প্রতিদিনই মৃত্যু হচ্ছে মানুষের। বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। বিশ্বে বুধবার (১৫ জুলাই) পর্যন্ত করোনাভাইরাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১ কোটি ৩৪ লাখ ৫৭ হাজার ৪৫৪ জন। আর এই ভাইরাসে প্রাণ গেছে ৫ লাখ ৮১ হাজার ২২১ জনের। এই ভাইরাস নিয়ন্ত্রণের কোন টিকা এখনও আবিষ্কার হয়নি। ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ১৭ হাজার ৯১৭ জন। একই সময়ে বিশ্বে মৃত্যুবরণ করেছেন ৫ হাজার ৪১৩ জন।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক পরিসংখ্যান পর্যালোচনা বিষয়ক প্রতিষ্ঠান ওয়াল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, বুধবার (১৫ জুলাই) পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর হিসাবে শীর্ষে রয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩৫ লাখ ৪৫ হাজার ৭৭ আর মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ৩৯ হাজার ১৪৩ জনে। এরপর রয়েছে ব্রাজিল। দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ১৮ লাখ ৮৭ হাজার ৯৫৯ জন আর মরা গেছেন ৭২ হাজার ৯২১ জন। মৃত্যুর হিসাবে তৃতীয় স্থানে যুক্তরাজ্য। সেখানে করোনাভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে ৪৪ হাজার ৮৩০ জনের আর দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৯০ হাজার ১৩৩। করোনায় মৃতের সংখ্যার হিসাবে ইতালিকে টপকে চার নম্বরে উঠে এসেছে মেক্সিকো। মেক্সিকোতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ৪ হাজার ৪৩৫ জন আর মৃত্যু হয়েছে ৩৫ হাজার ৪৯১ জনের। গেল ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৪৮৫ জনের। মৃত্যুর সংখ্যা বিবেচনায় ৫ম অবস্থানে আছে ইতালি, দেশটিতে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৩৪ হাজার ৯৬১ আর মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৪৩ হাজার ২৩০। ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে করোনা সংক্রমণের প্রথম লাগাম ছোটে ইতালিতেই। তবে বর্তমানে দেশটির নেয়া নিরাপত্তামূলক নানা পদক্ষেপে কিছুটা নিয়ন্ত্রিত করোনার সংক্রমণ। আক্রান্তের হিসাবে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ভারত। বৃহত জনগোষ্ঠীর এই দেশ এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্ত হয়েছে ৯ লাখ ৭ হাজার ৬৪৫ জন আর মৃত্যু হয়েছে ২৩ হাজার ৭২৭ জনের। এর রয়েছে রাশিয়া। দেশটিতে করোনায় মৃতের সংখ্যা ১১ হাজার ৪৩৯ আর আক্রান্তের সংখ্যা ৭ লাখ ৩৩ হাজার ৬৯৯।

আরএএস/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: