প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

এম. সুরুজ্জামান

শেরপুর প্রতিনিধি

শেরপুরে করোনা ভাইরাস নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা

   
প্রকাশিত: ৬:৪৩ অপরাহ্ণ, ১২ মার্চ ২০২০

নোভেল করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) নিয়ে শেরপুর স্বাস্থ্য বিভাগ সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা করেছে। বৃহস্পতিবার (১২ মার্চ) দুপুরে জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের হল রুমে অনুষ্ঠিত এ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সিভিল সার্জন আবুল কাসেম মোহাম্মদ আনওয়ারুর রউফ।

সভায় জানানো হয়, করোনা আক্রান্তদের জন্য জেলা সদর হাসপাতালে ১০ টি শয্যা, ঝিনাইগাতী উপজেলা হাসপাতালে ২০ টি শয্যা, শ্রীবরর্দী হাসপাতালে ২০ টি শয্যা, নালিতাবাড়ীর রাজনগর মা ও শিশু হাসপাতালে ৫০ টি ও নকলার উরফা হাসপাতালে ৫০ টি শয্যা প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এদিকে শেরপুরে নাকুগাও স্থলবন্দর দিয়ে বিদেশ ফেরৎ যাত্রীদের পরীক্ষার জন্য দুইটি মেডিক্যাল টিম করা হয়েছে। করোনা সন্দেহ হলে নালিতাবাড়ী ও নকলার দুটি প্রতিষ্ঠানে কোয়ারেন্টাম (সাধারণ থেকে বিচ্ছিন্ন রাখা) কক্ষ প্রস্তুত করা হয়েছে। সিভিল সার্জন অফিসে খোলা হয়েছে কন্টোল রুম। যা ২৪ ঘণ্টা খোলা থাকবে। দুটি উচ্চ পর্যায়ের মেডিক্যাল টিম করা হয়েছে করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য। করোনা আক্রান্ত চিকিৎসকদের জন্য বিশেষ স্বাস্থ্য ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে। স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে গণসচেতনতার জন্য জেলার বিভিন্নস্থানে লিফলেট বিলি করা হয়েছে।

সিভিল সার্জন আবুল কাসেম মোহাম্মদ আনওয়ারুর রউফ বলেন, করোনা প্রতিরোধে শেরপুর স্বাস্থ্য বিভাগ সর্বাত্মক গুরুত্ব দিচ্ছে এবং আমরা প্রস্তত আছি। গত ২৮ জানুয়ারী থেকে ১১ মার্চ পর্যন্ত জেলার নালিতাবাড়ী উপজেলার নাঁকুগাও স্থলবন্দর দিয়ে ভারত-বাংলাদেশে যাতায়াতকারী ৫৩৯ জন যাত্রীকে পরীক্ষা করা হয়েছে। এসব যাত্রীর কেউই করোনায় আক্রান্ত ছিল না। তিনি মানুষজনকে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দেন।

মতবিনিময় সভায় স্বাস্থ্য বিভাগের ডা. মোবারক হোসেন, ডা. মাসুদ রানা , ডা. আব্দুল হালিম, শেরপুর প্রেসক্লাব সভাপতি মো.শরিফুর রহমান, শেরপুর টাইমস সম্পাদক শাহরিয়ার মিল্টন, সিভিল সার্জন অফিসের কর্মকর্তারাসহ জেলার কর্মরত বিভিন্ন ইলেকট্র্রনিক, প্রিন্ট ও অনলাইন মিডিয়ার সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: