প্রচ্ছদ / সারাবিশ্ব / বিস্তারিত

শেষযাত্রায় সাহেবের কপাল মুছিয়ে দিলেন সোহিনী

   
প্রকাশিত: ৭:২০ অপরাহ্ণ, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০

রবীন্দ্র সদনে শায়িত ‘সাহেবের’ শবদেহ। এদিন সকাল থেকেই তাঁকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে জনস্রোত সেখানে। কাতারে কাতারে মানুষ প্রবীণ এই অভিনেতাকে শেষ শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করতে জমায়েত হয়েছেন। তাঁর মাথার পাসে ঠায় বসে রয়েছে স্ত্রী নন্দিনী এবং মেয়ে সোহিনী পাল। এত কিছুর মাঝে হঠাৎ নিজের জায়গা ছেড়ে উঠে পড়লেন তাপস-কন্যা সোহিনী। কাছে এসে বাবার মুখ মুছিয়ে দিলেন। চশমা পড়েছিলেন। কপালে এবং চশমায় ধুলো জমেছে দেখতেই ওড়না নিয়ে সযত্নে বাবার কপাল মুছিয়ে দিলেন। চোখের কোনে তখন শোকের অশ্রুবিন্দু।

জানা গেছে, সোহিনী আমেরিকায় থাকে। সেখানেই যাওয়ার কথা ছিল তাপস পালের। কিন্তু, তা আর হয়ে উঠল না বাবা তাপস পালের। মেয়ের কাছে পৌঁছনর আগেই সব শেষ। কিন্তু, শেষযাত্রায় বাবার পাশেই সর্বক্ষন থাকলেন মেয়ে সোহিনী। রবীন্দ্রসদনে অভিনেতা তথা প্রাক্তন সাংসদ তাপস পালকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে আসেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই সময় সোহিনীর সঙ্গেও কথা বললেন তিনি। এরপর বেলা ১’টা নাগাদ অভিনেতার শবদেহ নিয়ে যাওয়া হয় কেওড়াতলা মহাশ্মশানে। সেখানেই গান স্যালুটে শ্রদ্ধা জানিয়ে চিরবিদায় জানানো হয় তাপস পালকে। এ খবর দিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম কলকাতা২৪।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার ভোররাতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন বাংলার জনপ্রিয় অভিনেতা তাপস পাল। মুম্বইয়ের হাসপাতালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় তাঁর। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬১ বছর। এদিন মুম্বই বিমান বন্দর থেকে আমেরিকা যাওয়ার কথা ছিল অভিনেতার। কিন্তু বিমান বন্দরে হঠাৎ অসুস্থ বোধ করায় তাঁকে ভরতি করা হয় মুম্বইয়ের একটি হাসপাতালে। সেখানেই মারা যান তিনি।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: