প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

শ্বশুরকে এলোপাথাড়ি ছুরিকাঘাত করল জামাই

   
প্রকাশিত: ৯:১১ অপরাহ্ণ, ২৮ মে ২০২০

আব্দুল ওয়াদুদ, শেরপুর (বগুড়া) থেকে: বগুড়ার আদমদীঘিতে ছোট বোন খাদিজাকে বিয়ে করে ৩ বছর সংসার করার পর তাকে তালাক দিয়ে তারই বড় বোন আরিফাকে ৪ মাস আগে পালিয়ে বিয়ে করার পর পুনরায় ছোট বোনকে বিয়ে করতে বাঁধা দেওয়ায় জামাই শাকিল স্বশুড় আমিনুল ইসলামকে (৪০) কে এলোপাথারি ছুরিকাঘাতে গুরুত্বর আহত করেছে। আহত আমিনুল ইসলাম হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছে। মঙ্গলবার (২৬ মে) বিকেলে আদমদীঘির মুরইলে একটি চাতালে এ ছুরিকাতের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আহত আমিনুল ইসলামের স্ত্রী মিনা বেগম বাদি হয়ে বুধবার (২৭ মে) রাতে জামাই শাকিলসহ দুই জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ শাকিলকে গ্রেফতার করে আদালতে প্র্র্রেরণ করে।

জানা যায়, আদমদীঘির মুরইল একটি চাতালে দরিদ্র আমিনুল ইসলাম স্ব-পরিবারে বসবাস করে আসছিল। ৩ বছর আগে তার ছোট মেয়ে খাদিজার সাথে মুরইল ভাঙ্গা ব্রিজের নিকট আজিজুল হকের ছেলে শাকিলের সাথে বিয়ে দেয়। এদিকে ৪ মাস আগে শাকিল তার স্ত্রী খাদিজাকে তালাক দিয়ে বড় শালিকা আরিফাকে পালিয়ে নিয়ে বিয়ে করে। এরপর শাকিল খাদিজাকে আবারও বিয়ে করার জন্য শশুর ও শাশুড়ি নানা ভাবে চাপ ও হুমকি দিয়ে আসছিল। এতে বিয়েতে স্বশুড় রাজি না হওয়ায় গত মঙ্গলবার বিকেলে শাকিল তার লোকজনসহ স্বশুড় আমিনুলের বাড়িতে প্রবেশ করে তাকে এলোপাথারি ভাবে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। আদমদীঘি থানার তদন্তকারি উপ-পরিদর্শক রকিব জানান অপর আসামি ছাইফুল ইসলামকে গ্রেফতার তৎপরতা চলছে।

কেএ/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: