প্রচ্ছদ / স্পোর্টস / বিস্তারিত

শ্বাসরূদ্ধকর সুপার ওভারের ম্যাচে দিল্লির জয়

   
প্রকাশিত: ১:১১ পূর্বাহ্ণ, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০

ছবি: ইন্টারনেট

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) দ্বিতীয় ম্যাচে রবিবার (২০ সেপ্টেম্বর) মুখোমুখি হয় বলিউড কুইন প্রীতি জিনতার দল কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব এবং তরুণ অধিনায়ক শ্রেয়াশ আয়ারের দল দিল্লি ক্যাপিটালস। আগে ব্যাটিং করে মার্কাস স্টয়নিসের ক্যামিওতে ১৫৭ রানের সংগ্রহ পায় দিল্লি। পাঞ্জাবের ওপেনার মায়াঙ্ক আগারওয়ালের ৮৯ রান বৃথা গিয়েছে। সুপার ওভারের নাটকীয়তায় জয় পেয়েছে দিল্লি ক্যাপিটালস।

দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে আগে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেয় পাঞ্জাব। দিল্লির শুরুটা মোটেও ভালো হয়েছিল না। ১৩ রানের মাথায় তিন উইকেট হারায় দলটি। শিখর ধাওয়ান (০) রান আউট হওয়ার পরে পৃথ্বী শ (৫) ও শিমরণ হেটমায়ারকে (৭) সাজঘরে পাঠান মোহাম্মদ শামি।

চতুর্থ উইকেটে রিশভ পান্টকে সাথে নিয়ে বিপর্যয় সামাল দেওয়া চেষ্টা করেন অধিনায়ক শ্রেয়াশ আইয়ার। তবে ধীরগতিতে রান যোগ করেন তারা। দুইজনেই হাত খুলে খেলা শুরু করার পরপরই আউট হয়ে যান। রবি বিষ্ণয়ের বলে বোল্ড হয়ে পান্ট ফেরেন ২৯ বলে ৩১ রান করে। শামির তৃতীয় শিকার হওয়ার আগে আইয়ার করে ৩২ বলে ৩৯ রান। তার ইনিংসে ছিল তিনটি ছয়।

এরপরে স্টয়নিসের ঝড়ো অর্ধ শতকে লড়াকু সংগ্রহের পথে এগোয় দিল্লি। ইনিংসের শেষ বলের আগে রান আউট হন স্টয়নিস। তার ২১ বলে ৫৩ রানের এক টর্নেডো ইনিংস খেলেন তিনি। যারমধ্যে ক্রিস জর্ডানের শেষ ওভারেই নেন ২৫ রান। তার ব্যাটে চড়ে দিল্লি পায় ১৫৭ রানের সংগ্রহ। শামি ৪ ওভারে মাত্র ১৫ রান খরচায় শিকার করেন তিনটি উইকেট।

পাঞ্জাবের পক্ষে ভালো শুরু করেছিলেন লোকেশ রাহুল ও মায়াঙ্ক আগারওয়াল। তবে ৩০ রানে রাহুলের উইকেট পড়ার পরেই ধ্বস নামতে থাকে পাঞ্জাবের ইনিংসে। নিজের প্রথম ওভারেই করুণ নায়ার ও নিকোলাস পুরানকে ফিরিয়ে দুইটি উইকেট শিকার করেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। সেই ওভারেই চোট পান তিনি।

গ্লেন ম্যাক্সওয়েল বিদায় নেন ৪ বলে ১ রান করে। কাগিসো রাবাদার শিকার হন তিনি। ৫৫ রানে ৫ উইকেট হারানো পাঞ্জাবের ত্রাতা হয়ে দাঁড়ান মায়াঙ্ক। তার ব্যাট থেকে আসে ৮৯ রান। ৬০ বলের ইনিংসটিতে ছিল সাতটি চার ও চারটি ছয়। শেষ ওভারে আউট হন মায়াঙ্ক। তখন দলের জয়ের জন্য দরকার ছিল কেবল এক রান।

শেষ ওভারে ১৩ রান প্রয়োজন ছিল পাঞ্জাবের। ১২ রান দিয়ে দিল্লিকে খেলায় ফেরান সেই স্টয়নিস। ফলে ম্যাচ গড়ায় সুপার ওভারে। সুপার ওভারে আগে ব্যাট করতে নেমে কেবল ২ রান সংগ্রহ করতে পারে পাঞ্জাব। দুই রান করে দ্বিতীয় বলে আউট হন রাহুল। তৃতীয় বলে নিকোলাস পুরান আউট হলে তারা আর ব্যাট করতে পারে না। ফলে সহজেই জয় পায় দিল্লি। সুপার ওভারে দুই রান করে জয় এনে দেন পান্ট।

এআইআর/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: