প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

এম. সুরুজ্জামান

শেরপুর প্রতিনিধি

শ্রীবরদীকে মডেল পৌরসভা করতে চান আলমগীর

   
প্রকাশিত: ৬:৩২ অপরাহ্ণ, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০

শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন। ছাত্রলীগ থেকে শুরু হয় তার রাজনীনৈতিক জীবন। গত দু’বার পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে দলীয় মনোনয়ন পেতে মাঠে ময়দানে চালিয়েছেন নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা। কিন্তু দলীয় মনোনয়ন পাননি তিনি। এবারও আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী। দলীয় মনোনয়ন নামে সোনার হরিণ পেতে ভোটের মাঠে চালাচ্ছেন গণসংযোগ ও মতবিনিময় সভা। এছাড়াও দলের শীর্ষ স্থানীয় নেতৃবৃন্দদের সাথে গড়ে তুলছেন সখ্যতা।

সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকালে স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভায় তুলে ধরেন তার নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা ও রাজনৈতিক জীবনের কিছু তথ্য। পৌরসভার মুন্সীপাড়া গ্রামের বিশিষ্ট সমাজ সেবক আনোয়ার হোসেনের ছেলে আলমগীর হোসেন। তবে তিনি বসবাস করেন পার্শ্ববর্তী খামারিয়াপাড়া এলাকায়। এছাড়াও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশরাফ হোসেন খোকার ভাতিজা। তিনি পড়া লেখা করেন শ্রীবরদী এপিপিআই উচ্চ বিদ্যালয় ও শ্রীবরদী সরকারি কলেজে। ছাত্রলীগ থেকে শুরু হয় তার রাজনীতি। ১৯৮৪ সালে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হন। পরে সম্মেলনের মাধ্যমে দু’বার সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হন। পরে যোগ দেন আওয়ামী যুবলীগে। এখানেও তিনি দু’বার সম্মেলনের মাধ্যমে উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়াও ৯০ এর গণআন্দোলনে ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের উপজেলা শাখার যুগ্ম আহবায়ক ও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ছিলেন। তিনি বলেন, বিগত নির্বাচনেও আমি মেয়র পদে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলাম। দল আমাকে মনোনয়ন না দিলেও দলীয় প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা সক্রিয়ভাবে অংশ গ্রহণ করেছি। এবার আমার দৃঢ় বিশ্বাস দল আমাকে মনোনয়ন দিলে আমি বিপুল ভোটের ব্যবধানে নির্বাচিত হবো। তিনি আরো বলেন, আমি নির্বাচিত হলে শ্রীবরদী পৌরসভাকে একটি মডেল পৌরসভা হিসেবে গড়ে তুলবো।

এআইআর/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: