প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

সাহেদকে নিয়ে উত্তরায় র‍্যাবের অভিযান চলছে

   
প্রকাশিত: ১২:৩০ অপরাহ্ণ, ১৫ জুলাই ২০২০

গ্রেফতার হওয়া রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদকে নিয়ে উত্তরার একটি বাসায় অভিযান চালাচ্ছে র‍্যাব। বুধবার (১৫ জুলাই) বেলা ১২টার দিকে এই অভিযান শুরু হয়। সেখানে সাহেদের প্রতারণার বেশকিছু আলামত আছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বাড়ির দারোয়ান গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, রাতে হুটহাট করে সাহেদ বিভিন্ন সহযোগীসহ এখানে আসতেন। এখানে নানা ধরনের প্রযুক্তিপণ্যসহ তারা কাজ করতেন। এর আগে, সাতক্ষীরা থেকে বিশেষ হেলিকপ্টারে করে ঢাকায় আনা হয়েছে সীমান্তে র‍্যাবের হাতে গেফতার হওয়া মোহাম্মদ সাহেদকে। বুধবার সকালে ৯টায় সাহেদকে বহনকারী হেলিকপ্টারটি রাজধানীর পুরাতন বিমানবন্দরে অবতরণ করে। সেখান থেকে তাকে নেয়া হয় র‍্যাব সদর দফতরে।

তার আগে, সকাল ৮টায় সাতক্ষীরা স্টেডিয়াম থেকে সাহেদকে নিয়ে রাওনা দেয় র‍্যাবের হেলিকপ্টার। বুধবার ভোরে সাতক্ষীরা সীমান্ত দিয়ে ভারতে পালানোর সময় গ্রেফতার হয়েছেন করোনা পরীক্ষায় নিয়ে প্রতারণা করে দেশজুড়ে সমালোচিত হওয়া রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদ ওরফে সাহেদ করিম।

র‍্যাব জানিয়েছে, ক্ষণে ক্ষণে অবস্থান পরিবর্তন করছিলেন ধুরন্ধর সাহেদ। চেহারা পরিবর্তনের জন্য চুলে রঙ করেছিলেন তিনি। কেটে ফেলেছিলেন গোঁফ। নৌকায় করে নদী পার হয়ে চলে যাচ্ছিলেন তিনি। র‍্যাবের বিশেষ টিম পৌঁছানোর পর পালানোরও চেষ্টা করেন। র‍্যাবের টিম দেখে নৌকার মাঝি সাঁতরে পালিয়ে যান। কিন্তু মোটা হওয়ায় আর দৌড়ে কিংবা সাঁতরে পালাতে পারেননি প্রতারক সাহেদ। এ সময় তার পরনে ছিল কালো রঙের বোরকা। আটকের পর দেখা গেছে, সাহেদের গায়ের বিভিন্ন জায়গায় লেগে ছিল কাদা। কোমরে বাঁধা ছিল পিস্তল।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: