প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

সেই লাঞ্ছিত বৃদ্ধদের বাড়ি দেবেন ইউএনও

   
প্রকাশিত: ৫:৫৯ অপরাহ্ণ, ২৮ মার্চ ২০২০

মাস্ক ব্যবহার না করায় যশোরের মণিরামপুরে এসিল্যান্ড সাইয়েমা হাসানের হাতে লাঞ্ছিত বৃদ্ধদের বাড়িতে খাদ্যদ্রব্য নিয়ে হাজির হয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আহসান উল্লাহ শরিফী। শনিবার (২৮ মার্চ) বেলা ১২টার দিকে মণিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলামকে সঙ্গে নিয়ে ওই বৃদ্ধদের বাড়িতে যান ইউএনও আহসান উল্লাহ শরিফী। এ সময় তাঁদেরকে বাড়ি নির্মাণ করে দেওয়ার ঘোষণা দেন ইউএনও। স্থানীয় শ্যামকুড় ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মনিও তাঁর সঙ্গে ছিলেন।

মনিরুজ্জামান জানান, শুক্রবার বিকেলে মাস্ক না পরে চিনাটোলা বাজারে যাওয়ায় অত্র ইউনিয়নের দক্ষিণ লাউড়ি গ্রামের তরকারি বিক্রেতা আসমতুল্লাহ (৭২), একই গ্রামের ভ্যানচালক দিনমজুর বাবর আলী (৬০) ও দক্ষিণ শ্যামকুড় গ্রামের ভ্যানচালক নূর আলীকে (৬২) কান ধরিয়ে লাঞ্ছিত করেন এসিল্যান্ড সাইয়েমা হাসান।

বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে (ফেসবুক) ছড়িয়ে পড়ে। এরপর আজ শনিবার (২৮ মার্চ) মণিরামপুরের ইউএনও লাঞ্ছিত ব্যক্তিদের বাড়িতে খাদ্যদ্রব্য নিয়ে যান। এছাড়া চেয়ারম্যানের ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে তাঁদের তিনজনকে আর্থিক সাহায্য দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি। ইউএনও আহসান উল্লাহ শরিফী বলেন, আমি তাঁদের বাড়িতে গিয়ে বিষয়টি নিয়ে দুঃখ প্রকাশ করেছি। তাঁদের হাত ধরে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্ষমা চেয়েছি। আমি তাঁদেরকে সার্বিক সহযোগিতাসহ ঘর নির্মাণ করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছি।

তবে, গতকাল শুক্রবার বিকেলে উপজেলার কোনাকোলা বাজারে অভিযানে গিয়ে মাস্ক না পরায় অপর যে দিনমজুরকে কান ধরিয়ে উঠবস করিয়েছিলেন এসিল্যান্ড সাইয়েমা হাসান, তাঁর খোঁজ এখন পর্যন্ত কেউ নেয়নি।

কেএ/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: