স্বামীকে তালাক দিয়ে সৎ ছেলেকে বিয়ে করলেন মা মারিনা!

   
প্রকাশিত: ১১:৪৫ পূর্বাহ্ণ, ১৬ জুলাই ২০২০

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বেশ জনপ্রিয় রাশিয়ার ক্রাসনোদার ক্রাই-এ বসবাসকারী মারিনা বালমাশেভা। ৩৫ বছর বয়সী মারিনার স্বামীর ঘরে এক সৎ ছেলে রয়েছে। নিজের থেকে ১৫ বছরের ছোট সেই ছেলের নাম ভ্লাদিমি। প্রেম মানে না কোনো বাধা, মানে না কোনো ব্যবধান, দেখে না কোনো সম্পর্কের বেড়াজাল। এমনটাই হয়েছে মারিনা-ভ্লাদিমির বেলায়।

ভ্লাদিমিরের বাবা ‘আর’র বছর দশেক আগে বিয়ে করেছিলেন এই সুন্দরীকে। এক দশকের ‘অসুখী’ দাম্পত্যের পর মারিনা বুঝতে পারেন, ‘না, তিনি কখনো আরে’কে ভালোবাসেননি’। তিনি ভালোবেসেছেন সৎ ছেলে ভ্লাদিমিরকে। তারপর বাবার অজান্তেই শুরু হয়ে যায় সৎ মা এবং ছেলের প্রেম। একে অপরের সঙ্গে শারীরিক-মানসিক সবদিক থেকেই জড়িয়ে যান। সেই প্রেম এবার গড়াল বিয়ের পিঁড়ি পর্যন্ত। নিজের স্বামীকে ডিভোর্স দিয়ে গত সপ্তাহেই সৎ ছেলেকে বিয়ে করেছেন মারিনা। রেজিস্ট্রি অফিসে বিয়ে করার পর রীতিমতো বিয়ের পোশাকে সেজে রিসেপশনেরও আয়োজন করেছেন মারিনা এবং তার ১৫ বছরের ছোট ‘বর’। বেশ কিছু অতিথিও এসেছিলেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় মারিনা লিখছেন, আমি আমার সত্যিকারের জীবনসঙ্গীকে খুঁজে পেয়েছি। ইচ্ছে ছিল এ বছরের শুরুর দিকেই বিয়েটা সেরে ফেলব। কিন্তু লকডাউনের জন্য সেটা হলো না। গত সপ্তাহেই আমরা বিয়ে করেছি। এই ঘটানার সবচেয়ে বড় ব্যাপার হলো, মারিনা ও ভ্লাদিমিরের এই বিয়ে মারিনার আগের স্বামী তথা ভ্লাদিমিরের বাবাও মেনে নিয়েছেন। অনেকে অবশ্য সৎ সন্তানের সঙ্গে মারিনার এই বিবাহের সম্পর্ক খোলা মনে মানতে পারছেন না।

আরএএস/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: