স্বাস্থ্যবীমার আওতায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪০ হাজার শিক্ষার্থী

   
প্রকাশিত: ৬:১৪ অপরাহ্ণ, ১৭ জুন ২০২০

করোনাভাইরাস পরিস্থিতি বিবেচনায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪০ হাজার শিক্ষার্থী আসছে স্বাস্থ্যবীমার আওতায়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ডা.আক্তারুজ্জামান ।শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় এ বীমা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে দাবি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের।

এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ঢাবি’র প্রায় ৩০ শিক্ষার্থী। এসব প্রেক্ষিত বিবেচনায় মহামারির এমন সময়ে সকল শিক্ষার্থীর জন্য স্বাস্থ্য বীমা চালুর উদ্যোগ নিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এই উদ্যোগকে স্বাগত জানাচ্ছেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘শিক্ষার্থী হিসেবে এটা আমাদের জন্য অবশ্যই একটি ভালো উদ্যোগ। এখানকার ৭৫ শতাংশ শিক্ষার্থী নিম্ন বা মধ্যবিত্ত পরিবার থেকে এসেছে।’ স্বাগত জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংগঠনগুলোও। তবে তারা বলছেন, বিমার প্রিমিয়াম হতে হবে নূন্যতম।

এ প্রসঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন বলেন, ‘দ্রুততম সময়ের মধ্য এটা বাস্তবায়ন করার জন্য প্রশাসনকে অনুরোধ করছি।’ শুধুমাত্র স্বাস্থ্যবীমা নয়, মেডিকেল সেন্টারের আধুনিকায়নও করতে হবে। গবেষণায় ছাত্রদের যেন কোনো অর্থের অভাব না হয় সেদিকে দৃষ্টিপাতের আহ্বান শাখা ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক রাগিব নাঈমের। বিমার আওতায় খুবই স্বল্প অংকের প্রিমিয়াম দিয়ে শিক্ষার্থীরা করোনাকালীন সময়ে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিতে পারবে সহজেই। দেয়া হবে স্বাস্থ্য সচেতনতামূলক পরামর্শও। এ প্রসঙ্গে অধ্যাপক ড. সৈয়দ আবদুল হামিদ বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের অনেক সময় অনেক কারণেই স্বাস্থ্যসেবা নেয়া থেকে বিরত থাকতে হয়। বীমার ফলে চিকিৎসা সেবা থেকে কেউ বঞ্চিত হবে না।’

আরএএস/সাএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: