প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

হাসপাতালে রোগীর স্বজন ও সাংবাদিকের ওপর হামলা, আনসার সদস্য প্রত্যাহার

   
প্রকাশিত: ১১:২২ অপরাহ্ণ, ৪ জুলাই ২০২০

মুগদা জেনারেল হাসপাতালে ক্যানসারে আক্রান্ত মাকে নিয়ে করোনা পরীক্ষা করাতে আসেন ছেলে শাওন। পরীক্ষা তো করাতে পারেননি, উল্টো আনসার সদস্যদের মারধরের শিকার হয়েছেন তিনি। ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর মুগদা জেনারেল হাসপাতালে রোগীর স্বজন ও সাংবাদিকদের ওপর হামলার ঘটনায় এক আনসার সদস্যকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। ঘটনা তদন্তে বাহিনীর পক্ষ থেকে গঠন করা হয়েছে তিন সদস্যের কমিটি। এ ঘটনায় ক্যাম্পের সহকারী কমান্ডারসহ আরও তিনজনকে আজ শুক্রবার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সংস্থাটির সদর দপ্তরে ডাকা হয়েছিল।

প্রত্যাহার হওয়া আনসার সদস্য হলেন আফসারুল আমিন। তিনি ফটো সাংবাদিকদের ছবি তুলতে বাধা দিয়েছিলেন। এ ঘটনায় ধরাণকৃত ছবি থেকে দেখা যায় অন্তত দুজন আনসার সদস্য মায়ের করোনা পরীক্ষা করতে আসা যুবককে মারধর করেছিলেন।

আনসারের গণসংযোগ কর্মকর্তার দায়িত্বে থাকা উপ-পরিচালক (যোগাযোগ) মেহেনাজ তাবাসসুম রেবিন শনিবার (৪ জুলাই) বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এদিকে এ ঘটনায় প্রতিকার চেয়ে ভুক্তভোগী ফটোসাংবাদিক রুবেল রশীদ শনিবার হাসপাতালটির পরিচালক এবং আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মহাপরিচালকের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

শুক্রবার সকালে করোনা পরীক্ষা করাতে মাকে মুগদা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া এক যুবককে মারধর করেন আনসার সদস্যরা। এ ঘটনার ছবি তোলার সময় বাংলাদেশ প্রতিদিনের ফটোসাংবাদিক জয়ীতা রায়ের ওপর হামলা চালান অভিযুক্তরা। তাকে বাঁচাতে গেলে এক আনসার সদস্যের আঘাতে দেশ রূপান্তরের ফটোসাংবাদিক রুবেল রশীদের ক্যামেরা ভেঙে যায়।

মুগদা হাসপাতাল আনসার ক্যাম্পের সহকারী কমান্ডার রফিকুল ইসলাম জানান, হাসপাতালে কর্মরত তাদের চার আনসার সদস্যকে শনিবার বাহিনীর সদর দপ্তরে ডেকে নেওয়া হয়। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আফসারুল আমিনকে প্রত্যাহার করা হয়।

এআইআ/এইচি

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: