প্রচ্ছদ / স্পোর্টস / বিস্তারিত

২৮২ কোটি টাকায় করোনাকে ঘরে আনছে চেলসি!

   
প্রকাশিত: ১২:০৭ পূর্বাহ্ণ, ৩১ মে ২০২০

করোনা ভাইরাসের কারণে স্তব্ধ গোটা বিশ্ব। জনজীবনের পাশাপাশি থমকে গেছে খেলাধুলাও। শুরু হয়েছে জার্মানির বুন্দেসলিগা। আগামী মাসের তৃতীয় সপ্তাহ থেকে শুরু হতে পারে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ (ইপিএল)। এরই মাঝে অবাক করা এক খবর দিলো ইপিএলের শক্তিশালী দল চেলসি। সবাই যেখানে করোনা থেকে দূরে দূরে থাকতে চায়, সেখানে তারা করোনাকে দলে পেতে মরিয়া। তবে এটি করোনা ভাইরাস নয়। বরং পর্তুগিজ প্রিমেরা লিগার ক্লাব পোর্তোর মেক্সিকান মিডফিল্ডার হেসুস ম্যানুয়েল করোনা। তাকে দলে ভেড়াতে আগ্রহী চেলসি কোচ ফ্র্যাঙ্ক ল্যামপার্ড। শুধু তাই নয়, করোনাকে দলে পাওয়ার জন্য চড়া মূল্য পরিশোধ করতেও রাজি চেলসি। এরই মধ্যে ৩৭ মিলিয়ন পাউন্ডের বিনিময়ে আয়াক্স থেকে হাকিম জিয়েচকে নিশ্চিত করেছে তারা। এবার করোনার জন্য তারা ২৭ মিলিয়ন পাউন্ড বা প্রায় ২৮২ কোটি টাকা খরচ করতে রাজি।

করোনার সঙ্গে চেলসির কথাবার্তা চলছে, এ খবর নিশ্চিত করেছেন তারই এজেন্ট মাতিয়াস বুঙ্গে। মূলত ল্যামপার্ডের আগ্রহের কারণেই চেলসির সঙ্গে কথাবার্তা এগুচ্ছে বলে জানান তিনি। এছাড়াও আরও বেশ কয়েকটি বড় ক্লাবের সঙ্গেও কথা হচ্ছে বলে নিশ্চিত করেছেন মাতিয়াস।

মেক্সিকান সংবাদমাধ্যম মিডিও টিয়েম্পোকে মাতিয়াস বলেছেন, ‘আমরা একটা পর্যায় পর্যন্ত তাদের সঙ্গে কথা বলেছি। আমি এখনই বলতে পারবো না, সে (করোনা) তাদের প্রথম, দ্বিতীয় না তৃতীয় পছন্দ। বাকি সবই গুজব বলা চলে।’

তবে এ বিষয়ে তাড়াহুড়ো করতে চান না মাতিয়াস। এখন যেহেতু ফুটবল বন্ধ তাই আগে খেলা শুরুর অপেক্ষায়ই রয়েছেন মাতিয়াস ও তার ক্লায়েন্ট হেসুস করোনা। এছাড়া পোর্তোর সঙ্গে এখনও চুক্তির মেয়াদ বাকি রয়েছেও বলে উল্লেখ করেছেন মাতিয়াস।

তার ভাষ্য, ‘আমাদের এখন অপেক্ষা করতে হবে লিগ শুরুর। এরপর দেখতে হবে কোথাকার জল কোথায় গড়ায়। এখন আপাতত দলবদলের বাজার বন্ধ। তার (করোনা) এখনও দুই বছরের চুক্তি বাকি রয়েছে। এই লিগ (প্রিমেরা লিগা) খেলার প্রতিও বিশেষ আগ্রহ রয়েছে তার। এখন সবকিছু থমকেই আছে বলা যায়। দেখা যাক কী হয়।’

২০১৫ সালে এফসি টুয়েন্টি ব্যাক থেকে চেলসিতে যোগ দিয়েছেন করোনা। এরপর থেকে সার্জিও কোনসিকাওয়ের দলের হয়ে নিয়মিতই খেলছেন তিনি। চলতি মৌসুমে সবমিলিয়ে দুই গোলের পাশাপাশি এসিস্ট করেছেন ১৭টি। ফলে চেলসিসহ অনেক বড় ক্লাবেরই নজর পড়েছে তার ওপর।

কেএ/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: