প্রচ্ছদ / ক্যাম্পাস / বিস্তারিত

নাসিমকে নিয়ে শিক্ষিকার ব্যাঙ্গাত্মক স্ট্যাটাস, খেপেছে ছাত্রলীগ

   
প্রকাশিত: ৮:১৪ পূর্বাহ্ণ, ১৪ জুন ২০২০

সদ্য প্রয়াত আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের মৃত্যু নিয়ে ফেসবুকে ব্যাঙ্গাত্মক স্ট্যাটাস দেন রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) এক প্রভাষক। এ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ ও সরকারি অঙ্গসংগঠনের মাঝে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে তারা অভিযুক্তের কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। তা না হলে কঠোর আন্দোলন ও মামলার হুমকিও দিয়েছেন তারা। অভিযুক্ত ওই শিক্ষিকার নাম সিরাজুম মনিরা। সম্প্রতি তিনি বিশ্ববদ্যিালয়ের বাংলা বিভাগের প্রভাষক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন। এর আগে ছাত্রজীবনে তিনি বামপন্থী রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন।

জানা যায়, শনিবার লাইফ সাপোর্টে থাকা সাবেক সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর অন্যতম সদস্য মো. নাসিম মারা যান। তার মৃত্যুকে নিয়েই ওই শিক্ষিকা তার ব্যক্তিগত ফেসবুক একাউন্টে ব্যঙ্গ করে ‘যোগ্য নেতৃত্বে দেশ নাসিম্যা মুক্ত হল’ শিরোনামে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই বিষয়টি ভাইরাল হলে গেলে পরে তা মুছে (ডিলিট) দেন  তিনি। কিন্তু ততক্ষণে ওই স্ট্যাটাসের স্ক্রিনশট সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে যায়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ, বঙ্গবন্ধু পরিষদসহ স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ পাল্টা স্ট্যাটাস দিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষিকার শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। অন্যথায় কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তারা। এ ব্যাপারে বেরোবির বঙ্গবন্ধু হল ছাত্রলীগের সভাপতি পোমেল বড়ুয়া বলেন, একজন মৃত ব্যক্তিকে নিয়ে এমন মন্তব্য কোনভাবেই কাম্য নয়। আমাদের মনে প্রশ্ন জাগে এমন মানসিকতার একজন কিভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হন?

এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান নোবেল শেখ বলেন, একজন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষিকা হয়ে এমন স্ট্যাটাস দেয়া খুবই দুঃখজনক। শাখা ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। বিশ্ববিদ্যালয় খুললে আমরা এর প্রতিবাদ করব। এ ব্যাপারে কথা বলতে অভিযুক্ত শিক্ষিকা সিরাজুম মুনিরাকে ফোন দিলে প্রথমে তিনি কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি। এরপর থেকে তার মুঠোফোন বন্ধ রয়েছে।

কাওসার/নিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: