বিছানায় স্বামী অন্য নারীর সঙ্গে, বেঁধে নদীতে ফেললেন স্ত্রী

   
প্রকাশিত: ৬:৪৫ অপরাহ্ণ, ২৭ নভেম্বর ২০২০

ছবি: ইন্টারনেট

অন্য নারীর সঙ্গে পরকীয়া করায় একটি খাঁচার মধ্যে ঢুকিয়ে স্বামীকে বেঁধে নদীতে ফেলে দিয়েছেন তার স্ত্রী। স্বামীকে ওই নারী ডিভোর্স দেননি, তবে দিয়েছেন কঠিন শাস্তি। সম্প্রতি ঘটনাটি ঘটেছে চীনের মাওমিং শহরে।এই ঘটনার একটি ভিডিও এরই মধ্যে ভাইরাল হয়েছে। ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যায়, মারধর এবং বাঁধার সময় রীতিমতো কাঁদছিলেন ওই ব্যক্তি। কিন্তু তাতেও মন গলেনি স্ত্রীর। ফুটেজ প্রকাশের পর স্থানীয় পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।

জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরেই অন্য এক নারীর সঙ্গে সম্পর্ক ছিল তার স্বামীর। এর মধ্যেই বিছানায় একদিন হাতেনাতে ধরা পড়ে যান। এরপরই স্বামীকে মারধর করেন ওই নারী। তারপর আরও কয়েকজন ব্যক্তির সহযোগিতায় স্বামীকে একটি খাঁচার মধ্যে দড়ি দিয়ে বেঁধে নদীতে ফেলে দেন। যদিও এই ঘটনায় প্রাণে বেঁচে যান ওই ব্যক্তি। কোনোরকমে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এই ঘটনায় জড়িত থাকায় এরই মধ্যে চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। স্থানীয় পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। স্থানীয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এই ঘটনাটি ‘রোমান্টিক বিরোধের’ কারণে ঘটেছে। তবে বিস্তারিত তথ্য জানানো হয়নি স্থানীয় কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে।

প্রসঙ্গত, যে শাস্তি ওই ব্যক্তিকে দেওয়া হয়েছে, তার প্রচলন ছিল প্রাচীন চীনে, মিং ডাইনাস্টি (১৩৬৮-১৬৪৪) ও কিং ডাইনাস্টি (১৬৪৪-১৯১২) এই ধরনের শাস্তি দেয়া হতো, যার নাম ছিল ‘ডিপ ইন এ পিগ কেজ’‌। ‌অর্থাৎ খাঁচার মধ্যে কোনো ব্যক্তিকে ঢুকিয়ে তাকে দড়ি দিয়ে বেঁধে নদীতে ফেলে দেওয়া। ওই ব্যক্তির ক্ষেত্রেও এই একই ঘটনা ঘটেছে। তাকেও এভাবে ফেলে দেওয়া হয়েছে।- ডেইলি মেইল।

 

কেএ/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: