প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

ম্যাজিস্ট্রেট পরিচয়ে ছিনিয়ে নিতেন টাকা-মোবাইল

   
প্রকাশিত: ৮:১২ অপরাহ্ণ, ৩০ নভেম্বর ২০২০

আব্দুল ওয়াদুদ, শেরপুর (বগুড়া) থেকে: বগুড়ার চারমাথা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় সাধারণ মানুষদের পেলে কখনও সিআইডি কখনও দুদকের সহকারী কমিশনার পরিচয়ে টাকা-মোবাইল হাতিয়ে নিতেন এক প্রতারক। এমন তথ্য ছিল জেলা গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) কাছে। গতকাল রাতে প্রতারণার উদ্দেশ্যে ওই ব্যক্তির আবার আসার সংবাদে ডিবির দল ওৎ পাতে। সেখানে এক নারীর সাথে প্রতারণা করার সময় হাতেনাতে গ্রেপ্তার মো. আতিকুর রহমান ওরফে ফরিদ মিয়াকে (২৭)। তিনি রংপুরের মিঠাপুকুর উপাজেলার বড় হযরতপুর বুজরুক নূরপুর গ্রামের আব্দুর রউফ ওরফে আব্দুস সাত্তারের ছেলে। এ সময় ডিবি পুলিশ তার কাছে থেকে সিআইডি ও দুর্নীতি দমন কমিশনের সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট পদ উল্লেখ করা দুটি পরিচয়পত্র এবং ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র উদ্ধার করে। সোমবার (৩০ নভেম্বর) ডিবির ওসি আব্দুর রাজ্জাক এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে ডিবি পুলিশ জানায়, গতকাল সন্ধ্যার দিকে চারমাথা বাস স্ট্যান্ডে আসেন গাবতলী এলাকার মাসুমা খাতুন নামে এক নারী। তিনি বাবার বাড়ি দিনাজপুরে যাওয়ার বাসস্ট্যান্ডে অপেক্ষা করছিলেন। এমন সময় ফরিদ মিয়া তাকে মাস্ক না পরার জন্য জেরা করতে থাকেন। এ সময় নিজেকে ফরিদ মিয়া একবার সিআইডির সহকারী কমিশনার আরেকবার দুদকের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বলে পরিচয় দেন।

ডিবি পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ততক্ষণে অভিযানে নামে। দলটি বাসস্ট্যান্ড এলাকার আকবরিয়া হোটেলের সামনে এলে দেখে ওই নারীর মোবাইল নিয়ে টানাটানি করছেন ফরিদ মিয়া। এ অবস্থায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তার কাছে থেকে ভুয়া সিআইড ও দুদকের পরিচয়পত্র উদ্ধার হয়।

গতকাল পৃথক এক অভিযানে ৫০০ গ্রাম গাঁজাসহ মো. জাহিদুল ইসলাম (৩৭) এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে ডিবির অপর একটি দল। গতকাল রোববার সোনাতলা থানার মধুপুর ইউনিয়নের হরিখালী বাজার এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ডিবি ওসি আব্দুর রাজ্জাক জানান, গ্রেপ্তারিআতিকুর রহমান ওরফে ফরিদ মিয়ার জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর (এনআইডি) যাচাই করলে সেটিও নকল পাওয়া গেছে। ওই এনআইডি সিরাজগঞ্জের এক নারীর নামে রয়েছে। তবে তার বাড়ির ঠিকানা ঠিক আছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তার নাম ফরিদ মিয়া বলে জানা গেছে। গ্রেপ্তারদের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে বলে জানান ওসি।

এমআর/এনই

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: