প্রচ্ছদ / বিনোদন / বিস্তারিত

চাইলেই প্রতিশোধ নিতে পারতাম: ক্যাটরিনা কাইফ

   
প্রকাশিত: ৯:৩১ পূর্বাহ্ণ, ৩ ডিসেম্বর ২০২০

বর্তমানে বলিউডের শীর্ষ স্থানীয় অভিনেত্রীদের মধ্যে অন্যতম ক্যাটরিনা কাইফ আর তার সাক্ষাৎ পাওয়ার জন্য অনেক পরিচালকে অপেক্ষা করতে হয়। ২০০৩ সালে ‘বুম’ ছবিতে আত্মপ্রকাশ হয় ক্যাটরিনার। ছবিটি বক্স অফিসে একেবারেই মুখ থুবড়ে পড়ে। ছবির সঙ্গে সঙ্গে ক্যাটরিনা কাইফও সকলের অগোচরে রয়ে যান।

এর ফলে ক্যাটরিনার ফিল্ম ক্যারিয়ার আরো কঠিন হয়ে পড়ে এবং সেই সময়ে ‘সায়া’ নামে একটি ফিল্মের শুটিং শুরু হয়। এই মুভিতে ক্যাটরিনার বিপরীতে অভিনয় করছিলেন জন আব্রাহাম। জনও তখন উঠতি অভিনেতা। মডেলিং থেকে তখন সবে বলিউডে পা রাখছেন জন। জন ও ক্যাটরিনা দু’জনই তখন ইন্ডাস্ট্রিতে নতুন।

মহেশ ভাট তার এই ছবির জন্য এমন নতুন মুখই খুঁজছিলেন। জন ও ক্যাটরিনাকে তিনি নিজের ছবির জন্য সই করিয়ে নেন। ছবির শুটিংও শুরু হয়। কিন্তু তৃতীয় দিন সেটে গিয়ে ক্যাটরিনা জানতে পারেন তাকে ছবি থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। তার বদলে শর্মা নামে আরেক নবাগতকে নেওয়া হয়েছে। কেন এ রকম করা হলো তার সঙ্গে? ক্যাটরিনা জানতে পারেন যে, তার কো-স্টার জনের অনুরোধেই এমন হয়েছে। ক্যাটরিনা তখন ভালোভাবে হিন্দি বলতে পারতেন না। সে কারণেই জন নাকি তার সঙ্গে অভিনয় করতে রাজি ছিলেন না।

এই ঘটনা অবশ্য লাকি হয়ে ওঠে ক্যাটরিনার কাছে। কারণ এরপরই ক্যাটরিনার পরিচয় হয় সালমানের সঙ্গে। এরপরে ক্যাটরিনার সাফল্যের গল্প তো সবার জানা। কিন্তু ২০০৯ সালে ফিল্ম ‘নিউইয়র্ক’-এর সুযোগ আসে তার কাছে। আর এই ফিল্মে তার বিপরীতে ফের একবার জনকে নেওয়া হয়। ক্যাটরিনা চাইলেই প্রতিশোধ নিতে পারতেন, জনকে এই ফিল্ম থেকে বাদ দেওয়ার শর্ত রাখতেই পারতেন। কিন্তু তিনি তা করেননি, বরং তারই বিপরীতে অভিনয় করে ‘প্রতিশোধ’ নিয়েছিলেন সেই অপমানের।

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: