প্রচ্ছদ / জেলার খবর / বিস্তারিত

ভাটার টানে সুন্দরবনে পর্যটকবাহী লঞ্চ ডুবি

   
প্রকাশিত: ১০:৫১ অপরাহ্ণ, ৪ ডিসেম্বর ২০২০

সুন্দরবনে পশুর নদী কাতিয়ানাংলা এলাকায় পর্যটকবাহী লঞ্চ এম এল ডিসকভারি নামে একটি লঞ্চ ডুবে গেছে। শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) ভোরে সুন্দরবনের পশুর নদীর কাতিয়ানাংলা এই লঞ্চ ডুবিতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেছে সুন্দরবন বিভাগ ও ট্যুর অ্যাসোসিয়েশন অব সুন্দরবন।

ট্যুর অ্যাসোসিয়েশন অব সুন্দরবন মাজহারুল হক কচি জানান, ফরিদপুরের বোয়ালমারী থেকে ৩৩ জনের একটি টিম নিয়ে পর্যটকবাহী লঞ্চ এম এল ‘ডিসকভারি’ বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে খুলনার ৪ নম্বর ঘাট থেকে সুন্দরবনের হিরণ পয়েন্টের উদ্দেশে ছেড়ে যায়। হারবারিয়া, কটকা, দুলবার চর হয়ে লঞ্চটির হিরণপয়েন্ট যাওয়ার কথা ছিল। পর্যটকবাহী লঞ্চটি শুক্রবার ভোর ৪টার দিকে সুন্দরবনের এলাকায় পশুর নদীর কাতিয়ানাংলা এলাকায় ডুবোচরে আটকে যায়। এ সময় লঞ্চে থাকা যাত্রীরা সবাই মালামাল নিয়ে চরে নেমে পড়েন। নদীতে ভাটা থাকায় পানির টানে লঞ্চটি পেছন দিক থেকে নদীতে নেমে যেতে থাকে। এক পর্যায়ে এটি লম্বালম্বিভাবে নদীতে ডুবে যায়।

বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মুহাম্মদ বেলায়েত হোসেন জানান, সুন্দরবনে পশুর নদী কাতিয়ানাংলা এলাকায় পর্যটকবাহী লঞ্চ এম এল ‘ডিসকভারি নামে একটি লঞ্চ ডুবে গেলেও কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। দুর্ঘটনার পর পর্যটকরা নিজ এলাকায় ফিরে গেছেন। এম এল ডিসকভারি নামের ডুবে যাওয়া এই পর্যটকবাহী লঞ্চটি উদ্ধারে মালিক পক্ষ কাজ শুরু করেছে।

কেএ/ডিএ

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মন্তব্য: